বৃহস্পতিবার ১৬ অগাস্ট ২০১৮ ১লা ভাদ্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

বোদায় বোরো ধানের দাম নেই, কৃষকরা হতাশ

মোঃ লিহাজ উদ্দীন মানিক, বোদা (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি ঃ পঞ্চগড়ের বোদায় বোরো ধানের দাম নেই, কৃষকরা হতাশ হয়ে পড়েছে। উপজেলা কৃষি অফিস সুত্রে জানা যায়, চলতি মৌসুমে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে ৯ হাজার ৫শত হেক্টর জমিতে বোরো আবাদ হয়েছে। এবার কৃষকরা বোরো ধানের দিকে বেশি ঝুকে পড়েছিল। উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে জানা যায়, আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় এবার পোকামাকড় ও রোগবালাই ছিল না বললেই চলে। কিছু কিছু এলাকায় ব্লাস্ট রোগে আক্রান্ত হয়েছিল। তার পরেও মাঠ ভরা ফসল দেখে হাসি ফুটছিল কৃষকের মুখে। এবার বোরো ধানের বাম্পার ফলন হয়েছে। কিন্তু কৃষকরা বাজারে ধান বিক্রি করতে পারছেন না। বাজারে এক মণ ধান ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। গতকাল শনিবার বোদা উপজেলার প্রাণ কেন্দ্রে অবস্থিত নগরকুমারী হাটে ৫০০ থেকে সব্বোর্চ ৭০০ টাকা মণ দরে ধান বিক্রি হয়েছে। বাজারে একমাত্র ২৮ জাতের ধানের চাহিদা ভাল। তাছারা ২৯ ও হাইব্রিড ধানের দাম নেই বললে চলে। ২৮ ধান মণ প্রতি বিক্রি হয়েছে ৭০০ টাকা দরে। বাজারে ধান বিক্রি করতে আসা কৃষকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, দীঘক্ষণ লাইনে দাড়িয়ে থেকে ধান বিক্রি করতে হয়। ব্যবসায়ীরা বলছেন ধানের চাহিদা কমে যাওয়া বাজারে ধানের মুল্য কমে গেছে। চলতি মৌসুমে সরকারী ভাবে ধান ২৬ টাকা এবং চাল ৩৮ টাকা দরে ক্রয় করবে সরকার ঘোষণা দিয়েছিল। কিন্তু সরকারী খাদ্য গুদামগুলোতে চাল ক্রয় শুরু হলে এখন ও পর্যন্ত ধান ক্রয় শুরু হয়নি। বোদা বাজারে ধান বিক্রি করতে আসা কৃষক তরিকুল, আনিছুর, বেলাল, মানিক, শওকত আলী সহ অনেকে জানান, তারা একটু লাভের আশায় চলতি মৌসুমে বোরো আবাদ করেছেন। কিন্তু ধানের ভালো ফলন হলেও দাম না থাকায় তারা লোকসানে পড়ছেন। কারণ বোরো ধানের একটু বেশি খরচ হয়। এভাবে চলতে থাকলে কৃষকরা বোরো ধানের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলবেন বলে অনেক কৃষকের অভিমত।