বৃহস্পতিবার ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭ ৩০শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ

বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির কারনে ক্ষতিপুরণের দাবীতে ১৩ গ্রামবাসীর মানববন্ধন

ful

রাইসুল ইসলাম, পার্বতীপুর (দিনাজপুর) : দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির কারনে নতুন করে ১৩টি গ্রাম ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় ক্ষতিপুরনের দাবীতে ৫ হাজার গ্রামবাসী আজ বুধবার (৬ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১০ টায় মানববন্ধন করেছেন খনি এলাকায়। বড়পুকুরিয়া কয়লাখনি এলাকার ক্ষতিগ্রস্ত ১৩ গ্রামের সমন্বয় কমিটির আহবায়ক মোঃ মশিউর রহমান বুলবুল মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন, আমাদের ৬ দফ দাবী খনি কর্তৃপক্ষকে মেনে নিতে হবে। ক্ষতিগ্রস্ত গ্রামের  মধ্যে মোবারকপুর, বৈগ্রাম, কাশিয়াডাঙ্গা, রসুলপুর, কালুপাড়া, মহেশপুর, পাতরাপাড়া, বাশঁপুকুর, বৈদ্ধনাথপুর, কাজিপাড়া, হামিদপুর, চৌহাটি, যবরপাড়া এলাকায় ভু-গর্ভ থেকে কয়লা উত্তলনের ফলে ঘরবাড়িতে নতুন করে ফাটল ধরলেও ক্ষতিপুরন দেয়া হচ্ছে না বলে তিনি তার বক্তব্যে উল্লেখ করেন। এছাড়াও ক্ষতিগ্রস্ত প্রত্যেক পরিবার থেকে চাকুরির ব্যবস্থা করতে হবে ও কোটা রাখতে হবে বলে দাবিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

খনি কর্তৃপক্ষ গ্রামবাসীদের দাবী মেনে না নিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শন ও মামলা মোকদ্দমা করে আন্দোলনকে বন্ধ করতে চাচ্ছে। সেই সাথে খনিতে কর্মরত ৪ থেকে ৫ জন কর্মকর্তা এ খনিটিকে ধ্বংস করার পায়তারা করছে এবং অভিযুক্ত কর্মকর্তারা বর্তমানে কোটি কোটি টাকার মালিক বনে গেছেন বলে অভিযোগ করেন বুলবুল।

মানববন্ধনে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, খনি এলাকার বৈগ্রামের বীর মুক্তি যোদ্ধা মোঃ নুরুল ইসলাম, মোঃ মোস্তফা, চৌহাটি গ্রামের মোঃ মিজানুর রহমান, মোবারকপুর গ্রামের মোঃ হাসান, রসুলপুর গ্রামের মোঃ রতন, পাতরাপাড়া গ্রামের মোঃ মামুন, মোঃ সাইদুর রহমান ও কাজিপাড়া গ্রামের মোঃ লিয়াকত আলী।