শনিবার ২৫ মে ২০১৯ ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মা-ই আমার নায়ক-জয়া আহসান

দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান তার জীবনে সবচেয়ে বড় নায়ক মনে করেন মা-কে। আজকের এই অবস্থানে আসতে চলার শক্তি,  প্রেরণা, সাহস সব পেয়েছেন মায়ের কাছ থেকেই। 
বিশ্ব মা দিবসে এই অভিনেত্রী ছোট বেলার স্মৃতি মনে করে বলেন, যখন খুব ছোট ছিলাম, সবাই আমাকে ডাকত জাপানি ডল বলে। পরিচিতজনেরা আদর করে বলতেন, এই পুতুলটা কে রে? আমি তখন ডাঁট দেখিয়ে বলতাম, আমি কবিতার মেয়ে ববিতা।

মা-ময়ের সম্পর্কের বিষয়ে তিনি বলেন, আমার মায়ের সঙ্গে সম্পর্কটা খুবই অদ্ভুত। তাকে সালাম করতে কেমন যেন সংকোচ লাগে আমার। অন্য অনেকের মতো মাকে জড়িয়ে ধরতে পারি না। কিন্তু শারীরিক ও মানসিকভাবে মায়ের সঙ্গে আমার বেশি মিল। মায়ের কারণেই আমি আজ এত দূর। আমার ওপর মায়ের বিশ্বাস ছিল আমি কোনো ভুল সিদ্ধান্ত নেব না। বলতে পারি শেষ পর্যন্ত মা-ই আমার নায়ক। সব কিছুর পর মায়ের মুখের দিকে তাকিয়ে অনিবর্চনীয় এক শান্তি পাই। দিন শেষে সেই মুখ আমার পরম আশ্রয়।

জয়া আহসান বর্তমানে কলকাতায় রয়েছেন। সেখানে শুক্রবার মুক্তি পেয়েছে তার নতুন ছবি কণ্ঠ।  নন্দিতা রায় ও শিবপ্রসাদ মুখার্জী পরিচালিত এই ছবিতে আরো অভিনয় করেছেন পাওলি দাম। মুক্তির আগে এই ছবির প্রিমিয়ার দেখে জয়ার অভিনয়ের প্রশংসা করেছেন উপমহাদেশের সেরা এই হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দেবী শেঠি। 

এক বিবৃতিতে দেবী শেঠি বলেন, এই ছবি ক্যানসারে আক্রান্ত রোগীকে আশা জাগাবে।  তারা সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরবেন। তারাও জীবনে উপভোগ করতে পারবেন। ভবিষ্যতের সুন্দর দিনে তাদের অধিকার আছে। আর যেভাবে গল্পটা বলা হলো, এটা এককথায় অসাধারণ।

শুধু তাই নয়, দেবী শেঠি নিজের হাসপাতাল নারায়ণা হৃদয়ালয়াতেও ছবিটির বিশেষ কয়েকটি প্রদর্শনীর অনুরোধও জানিয়েছেন। সেই সঙ্গে তার রোগীদের এই (কণ্ঠ) সিনেমা দেখতে উপদেশ দেবেন।