রবিবার ২২ এপ্রিল ২০১৮ ৯ই বৈশাখ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

যেমন হবে মঙ্গল গ্রহের ঘরবাড়ি

সৌরজগত নিয়ে মানুষের কৌতূহলেন শেষ নেই। মঙ্গল গ্রহে বাস করতে গেলে ঘরবাড়ি কেমন হতে হবে, তা নিয়ে সম্প্রতি অনুষ্ঠিত হয়েছে ‘মারস সিটি ডিজাইন’ প্রতিযোগিতার। আর এ প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হয়েছে ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজির (এমআইটি) একটি দল। তারা ভবিষ্যতে মঙ্গল গ্রহে টিকে থাকতে টেকসই শহর তৈরির নকশা দিয়েছেন।

বনের মতো টেকসই শহরের এ নকশার নাম দিয়েছেন রেডউড ফরেস্ট। প্রতিটি গাছবাড়ি শাখা-প্রশাখা পদ্ধতির মতোই হবে এবং টানেলগুলো গাছের মূলের মতো হবে। রেডউড ফরেস্টের এই নকশা কম্পিউটারের বিশেষ পদ্ধতিতে তৈরি করেছেন তারা।

‘রেডউড ফরেস্ট’ নামের ওই নকশায় গম্বুজ বা গাছের বাসস্থান তৈরির যে বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে তাতে একটি বাড়িতে ৫০ জন মানুষ থাকতে পারবে। ওই গম্বুজে উন্মুক্ত ও মানুষের চলাফেরার জায়গা থাকবে। এর পাশাপাশি থাকবে গাছপালা ও প্রচুর পানি। এছাড়া মঙ্গলের উত্তর দিকের সমভূমি থেকে পানি উৎপাদন ও ফসল সংগ্রহ করার ব্যবস্থা থাকবে। গাছের বাসস্থান হবে মাটির নিচের টানেলের ওপর নির্মিত বিশেষ ঘর। এখানে ব্যক্তিগত চলাফেরার জায়গার পাশাপাশি আরেকজনের ঘরে যাওয়া ও যোগাযোগের সুযোগও থাকবে। এ পদ্ধতিতে ১০ হাজার মানুষের বসবাস উপযোগী একটি শহর গড়ে তোলা সম্ভব হবে। টানেলগুলো এখানকার মানুষকে মহাজাগতিক বিকিরণ, গ্রহাণুর ধুলা ও চরম তাপবৈচিত্র্য থেকে সুরক্ষা দিতে পারবে।

গবেষক ভ্যালেনটিনা সুমিনি বলেন, ‘মঙ্গলে আমাদের নকশায় তৈরি শহরটি একটি বনের মতো কাজ করবে, যা মঙ্গল গ্রহের বরফ, পানি, মাটি, সূর্যের আলো জীবনধারণে সাহায্য করবে। মঙ্গলের মাটিতে একটি বনের নকশা করার অর্থ এর পৃষ্ঠে প্রাকৃতিকভাবে প্রকৃতিকে ছড়িয়ে দেওয়ার সম্ভাবনা ফুটিয়ে তোলা।’