শনিবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ৫ই আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

রংপুরে জন্মাষ্টমী পালিত

রংপুর প্রতিনিধি : সনাতন ধর্মের মহাবতার ভগবান শ্রীকৃষ্ণের  শুক্রবার শুভ জন্মতিথি। এই মহাপুণ্য তিথিতে কংসের কারাগারে বন্দি দেবকী ও বাসুদেবের বেদনাহত কোল আলো করে এসেছিলেন পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণ। আজ পালিত হলো হিন্দুদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব। হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা বিশ্বাস করেন, দুষ্টদের দমন আর সজ্জনদের রক্ষার জন্যই আজ থেকে প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার বছর আগে দ্বাপর যুগে ভাদ্র মাসের কৃষ্ণপক্ষের অষ্টমী তিথিতে অবতার ভগবান শ্রীকৃষ্ণ আবির্ভূত হয়েছিলেন।
হিন্দু পঞ্জিকা মতে, সৌর ভাদ্র মাসের কৃষ্ণপক্ষের অষ্টমী তিথিতে যখন রোহিণী নক্ষত্রের প্রাধান্য হয়, তখন জন্মাষ্টমী পালিত হয়। উৎসবটি গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার অনুসারে প্রতিবছর মধ্য-আগস্ট থেকে মধ্য-সেপ্টেম্বরের মধ্যে কোনো এক সময়ে পড়ে।
জন্মাষ্টমী উপলক্ষে রংপুরেও বিস্তারিত কর্মসূচি পালন করেন বাংলাদেশ পুঁজা উদযাপন পরিষদ রংপুর জেলা ও মহানগর কমিটি। বণার্ঢ্য শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন কর্মসচি পালন করেন রংপুরের সনাতন ধর্মালম্বীরা।
বিকেল সাড়ে ৫টায় নগরীর পাবলিক লাইব্রেরী মাঠ থেকে একটি বণার্ঢ্য শোভা যাত্রার বের করা হয়। বাংলাদেশ পুলিশ রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্য প্রধান অতিথি থেকে বণার্ঢ্য শোভাযাত্রার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন রংপুরের জেলা প্রশাসক আসিব আহসান, মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার শহিদুল্লাহ কাওছার ও পুলিশ সুপার ভারপ্রাপ্ত আবু মোঃ মারুফ হোসেন, মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডল।
এ সময় স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পুঁজা উদযাপন পরিষদ রংপুর মহানগর কমিটির সভাপতি মুকুল সরকার। শোভাযাত্রাটি নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে ধর্মসভায় গিয়ে শেষ হয়।
শোভাযাত্রায় নারী পুরুষসহ হিন্দু সম্প্রদায়ের সকল বয়সের মানুষ অংশ গ্রহণ করেন।
পরে সন্ধ্যায় নগরীর ধর্মসভায় এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ পুঁজা উদযাপন পরিষদ রংপুর জেলার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শ্রী বাবন প্রসাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পুলিশ রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্য। বিশেষ অতিথি ছিলেন রংপুরের জেলা প্রশাসক আসিব আহসান, মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার শহিদুল্লাহ কাওছার ও পুলিশ সুপার ভারপ্রাপ্ত আবু মোঃ মারুফ হোসেন, মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডল।
এর সময় স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পুঁজা উদযাপন পরিষদ রংপুর জেলার সাধারণ সম্পাদক ধীমান ভট্টাচার্য্য। আলোচনা সভা শেষে কৃর্ত্তন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।
এর আগে বিকেল ৩টায় দিবসটি উপলক্ষে রংপুর জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় এবং হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাষ্টের আয়োজনে রংপুর টাউন হল রুমে মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জলন, আলোচনা ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন রংপুরের বিভাগীয় কমিশনার কে.এম তারিকুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ পুলিশ রংপুর রেঞ্জের ডিআইজি দেবদাস ভট্টাচার্য্য, মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার শহিদুল্লাহ কাওছার ও পুলিশ সুপার ভারপ্রাপ্ত আবু মোঃ মারুফ হোসেন, মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মন্ডল, বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদ রংপুরের সভাপতি বাবু বনমালী পাল।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রংপুরের জেলা প্রশাসক আসিব আহসান এবং স্বাগত বক্তব্য রাখেন হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাষ্টের সহকারী প্রকল্প পরিচালক সঞ্জয় কুমার পাল।
অনুষ্ঠান শেষে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার প্রতিযোগিদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।