সোমবার ২১ মে ২০১৮ ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

রংপুরে মস্তকবিহিন মাদ্রাসার শিশুর লাশ মসজিদ থেকে উদ্ধার

রংপুর প্রতিনিধি : নিখোঁজের একদির পর রংপুরে মস্তকবিহিন হাফিজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষার্থীর লাশ মসজিদ থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। শিশুটির নাম তানভির আব্দুলাহ তালহা (১৩)। বাবার নাম খান জাহান আলী। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পৌণে ৭ টায় লাশটি উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ। তবে এখন পর্যন্ত পুলিশ শিশুর মস্তকটি উদ্ধার করতে পারেনি।
কোতয়ালি থানার এসআই জাহিদুল ইসলাম জানান, রংপুর সেনানিবাসে কর্মরত সার্জেন্ট খান জাহান আলী নগরীর ভগিবালাপাড়া এলাকায় বাড়ি ভাড়া নিয়ে থাকেন। বাড়ির পাশেই রয়েছে রহমানিয়া নুরানী হাফিজিয়া মাদ্রাসা ও লিল্লাহ বোর্ডিং। এই নুরানী হাফিজিয়া মাদ্রাসায় খান জাহান আলী তার ছেলে তানভির আবদুলাহ তালহাকে ভর্তি করান হাফিজিয়া পড়ার জন্য। বুধবার থেকে তিনি তালহাকে খুঁজে না পেয়ে বৃহস্পতিবার সকালে রংপুর কোতয়ালি থানায় একটি সাধারন ডায়রী করেন। এরপর কোতয়ালি থানার এসআই জাহিদুল ইসলাম বিকেলে ভগিবালাপাড়ায় ওই হাফিজিয়া মাদ্রাসায় যান তদন্ত করতে। তিনি মাদ্রাসায় শিশুটিকে খুঁজতে থাকেন। কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদও করেন। এরপর মাদ্রাসার পাশেই দ্বিতীয় তলায় মসজিদ। এই মসজিদের দ্বিতীয় তলা তালাবদ্ধ দেখতে পান। তালা খুলে দেখেন নামাজ পড়ার একটি চটে মোড়ানো তানভির আবদুল্লাহ তালহার মস্তক বিহিন লাশ। এরপর আশপাশে অনেক খোঁজাখুজির পরও শিশুর মাথাটি উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। এ রিপোর্ট লেখা পর্যস্ত পুলিশ কাউকে গ্রেফতারও করতে পারেনি। তবে কি কারণে শিশুটিকে হত্যা করা হলো তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।