শনিবার ৩১ অক্টোবর ২০২০ ১৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

রসায়নে নোবেল পেলেন দুই নারী

রসায়নে বিজ্ঞানে এ বছর যৌথভাবে নোবেল জিতে নিয়েছেন যৌথভাবে ফরাসী বিজ্ঞানী ইমানুয়েল সারপেন্টিয়ের এবং মার্কিন বিজ্ঞানী জেনিফার এ. ডাউডনা। সুইডেনের স্টকহোমে স্থানীয় সময় সকাল ১১.৪৫ টার পরে রসায়েন নোবেল বিজয়ী হিসেবে এ দুই বিজ্ঞানীর নাম ঘোষণা করে দ্য রয়েল সুইডিশ অ্যাকাডেমি অব সায়েন্সের একটি প্যানেল। এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি জানায় নোবেল কমিটি। এক টুইটবার্তায়ও ছবিসহ এ দুইজনের নাম প্রকাশ করা হয়।

জিনোম গবেষণায় নতুন পদ্ধতি আবিষ্কার করে এ বছরের নোবেল জিতে নেন ইমানুয়েল এবং জেনিফার।

‘ফ্রাঞ্চ প্রফেসর’ নামে পরিচিত ৫১ বছর বয়সী ইমানুয়েল কাজ করছেন জার্মানির বার্লিনের ম্যাক্স প্লাঙ্ক ইউনিট ফর দ্য সায়েন্স অব প্যাথোজেন্সে। তিনি বার্লিনের ম্যাক্স প্লাঙ্কের ইনস্টিটিউট ফর ইনফেকশন বায়োলজির ডিরেক্টর হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। মাইক্রোবায়োলজি, জেনেটিক্স এবং বায়োকেমিস্ট্রিতে তার গবেষণা বহুল স্বীকৃত।

অন্যদিকে ৫৬ বছর বয়সী মার্কিন প্রাণরসায়নবিদ জেনিফার যুক্তরাষ্ট্রের বার্কলির ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে একাধারে আণবিক জীববিজ্ঞান, কোষ জীববিজ্ঞান ও রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক। ২০১২ সালে ইমানুয়েল এবং জেনিফার সর্বপ্রথম ব্যাক্টেরিয়ার ব্যবহৃত এনজাইম ক্রিসপার/ক্যাস৯ যে মনুষ্য নকশাকৃত জিন সম্পাদনায় ব্যবহার করা যেতে পারে, সে ব্যাপারে প্রস্তাবনা রাখেন। এই আবিষ্কার জীববিজ্ঞানের ইতিহাসে অন্যতম বৈপ্লবিক আবিষ্কার হিসেবে স্বীকৃত। 

আগের দিন পদার্থ বিজ্ঞানে এ বছর যৌথভাবে নোবেল জিতে নিয়েছেন তিন জোতির্বিজ্ঞানী স্যার রজার পেনরোজ, রেইনহার্ড জেঞ্জেল এবং আন্দ্রেয়া এম. গেজ। ছায়াপথ (গ্যালাক্সি) এবং কৃষ্ণগহবর (ব্ল্যাকহোল) গবেষণায় ভূমিকা রাখেন তারা।

সোমবার চিকিৎসা বিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার দেয়া হয় তিন বিজ্ঞানীকে। হেপাটাইটিস-সি ভাইরাস আবিষ্কার করে অসামান্য ভূমিকার জন্য যৌথভাবে নোবেল জিতে নেন মার্কিন বিজ্ঞানী হার্ভে জে অল্টার ও  চার্লস এম রাইস এবং ব্রিটিশ বিজ্ঞানী মাইকেল হিউটন।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email