শুক্রবার ২৯ মে ২০২০ ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

রাণীশংকৈলে প্রমিলা ফুটবল দল আর মাঠে খেলতে যায় না !

রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি ঃ বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনা প্রতিরোধের অংশ হিসাবে সরকারী নির্দেশনা অনুযায়ী গত ২৬ মার্চ থেকে নিত্যপ্রয়োজনীয় দোকান পাট ছাড়া সব ধরনের দোকান পাট ও অফিস আদালত বন্ধ করায় ও সাধারণ মানুষের উন্মুক্ত চলাচলে নিষেধাজ্ঞা থাকায় বিপাকে পড়েছে শ্রমজীবি মানুষেরা।

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার জাতীয় পর্যায়ে ফুটবল খেলা রাঙ্গাটুঙ্গী ইউনাইটেড প্রমিলা ফুটবল দলের মেয়েরা করোনা আতংকে মাঠে আর খেলতে আসছেন না। দলের পরিচালক অধ্যক্ষ তাজুল ইসলাম ও রয়েছেন লকডাউনে।

২০১৪ সালে জুলাই মাসে জেলার নিভৃত পল্লীতে গড়ে উঠে এ মহিলা ফুটবল দলটি। ২০১৬ সালে জেলার হয়ে বিভাগীয় পর্যায়ে রানার্স আপ হয়ে ফাইনালে উঠেন। ২০১৭ সালে জয়বাংলা অ্যাওয়ার্ড পান এবং জাতীয় খেলায় রানার্স আপ হয় ।

এমনি ভাবে দলের সবাই পড়েছেন বিপাকে, শ্রমজীবি মানুষ ও ভিক্ষুকরা পড়েছেন বিপাকে। এদের সরকারী ভাবে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেওয়ার কথা থাকলেও কেউ এগিয়ে আসছেনা।

অপরদিকে করোনা আতংকে গ্রামের মসজিদ গুলোতে বেড়েছে মুসল্লির সংখ্যাও। সেনাবাহিনী ও থানা পুলিশ সাধারণ মানুষদের বাড়িতে থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন। ইউএনও মৌসুমী আফরিদা সফলতার সাথে দার্য়িত্ব পালন করেই চলছে। তবে ঢাকা ফেরৎ ও শ্রমজীবিদের কাছে সরকারি ভাবে তুলনা মূলক এখনো ত্রান সামগ্রী পৌছায়নি। পৌর শহরে ও সাহয্যের হাত পড়েনি এখনো। করোনা মোকাবেলায় ইউপি চেয়ারম্যানদের তেমন ভূমিকা লক্ষ করা যাচ্ছেনা।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহি কর্মকর্তা মৌসুমী আফরিদা মুঠোফোনে বলেন, সরকারি নিদের্শনা মোতাবেক দার্য়িত্ব পালন করে যাচ্ছি। তিনি আরো বলেন, এ অঞ্চলের মানুষকে করোনা ভাইরাস প্রসঙ্গে বুঝাতে হচ্ছে। তবে জীবানু স্প্রে করা জরুরী বলে মনে করেন তিনি।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email