বুধবার ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ ২৭শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

রাশিয়া বিশ্বকাপকে সামনে রেখে অবৈধ জুয়াড়িদের কালো থাবা

আকস্মিক মাথাচড়া দিয়ে ওঠা রাশিয়ার আংশিক বৈধ জুয়া। বিকাশমান অনলাইন জুয়া কোম্পানির একাউন্টে কমপক্ষে এক বিলিয়ন ডলারের লেনদেন ঘটবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

আগামী জুন-জুলাইয়ে বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের প্রস্তুতি নিতে যাওয়া রাশিয়ার জন্য বিষয়টি নতুন চ্যালেঞ্জ হিসেবে আবির্ভুত হতে যাচ্ছে। কারণ ইতোমধ্যে ঘরোয়া ফুটবলে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের ঘটনা উদঘাটিত হয়েছে।

আর মাত্র ১০০ দিন পর রাশিয়ায় পর্দা উঠতে যাচ্ছে ‘দ্য গ্রেটেস্ট শো অন দ্য আর্থ’-এর। এ সময় যে ম্যাচ পাতানোর ঘটনা ঘটবে না তা কেউ বিশ্বাস করে না। পুলিশ বিভাগ নিয়ে সংগ্রামরত রাশিয়ার জন্য এটি হবে আরেকটি কালো অর্থনৈতিক দিক। অনলাইনে বাজির অর্থ লেনদেন বিষয়ক সরকার নিযুক্ত পরিচলনা সংস্থার (টিসইউপিআইএস) পরিচালক এ্যান্টন রোজকভস্কি বার্তা সংস্থা এএফপি’কে বলেন, ‘প্রতি বছর বৈধ ও অফসোর অনলাইন বাজির বাজারে বার্ষিক টার্নওভারের পরিমান দুই বিলিয়ন ডলারেরও বেশি। তবে এটিকে আমরা সঠিক ফিগার বলে উল্লেখ করতে পারছি না। এটি আড়াই কিংবা ৫ বিলিয়ন ডলারও হতে পারে। এর ৭০ শতাংশই অবৈধ, অফসোর ব্যবসা।’ বাসস।