শনিবার ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০ ১৬ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

রিশা হত্যা মামলার আসামি ওবায়দুল হ‌কের মৃত্যুদণ্ড

রাজধানীর উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজের ছাত্রী সুরাইয়া আক্তার রিশা হত্যা মামলার একমাত্র আসামি ওবায়দুল হ‌ককে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত।

বৃহস্পতিবার (১০ অ‌ক্টোবর) বিকেলে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদাল‌তের বিচারক কে এম ইমরুল কা‌য়েশ এ রায় ঘোষণা করেন।

পুরান ঢাকার সিদ্দিক বাজারের ব্যবসায়ী রমজান হোসেনের ১৪ বছর বয়সী মেয়ে রিশা উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলে অষ্টম শ্রেণিতে পড়তো।

২০১৬ সালের ২৪ আগস্ট দুপুরে স্কুলের সামনে ফুটওভার ব্রিজে তাকে ছুরিকাঘাত করা হয়। চারদিন পর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায় সে।

হামলার দিনই রিশার মা তানিয়া বেগম রমনা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ১০ ধারায় এবং দণ্ডবিধির ৩২৪/৩২৬/৩০৭ ধারায় হত্যাচেষ্টা ও গুরুতর আঘাতের অভিযোগে মামলা করেন। রিশা মারা যাওয়ার পর এটি হত্যা মামলায় রূপান্তরিত হয়। মামলার একমাত্র আসা‌মি দ‌র্জির দোকানি ওবায়দুল হক।

২০১৬ সালের ২৪ আগস্ট ওবায়দুলের ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হয় রিশা। ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৮ আগস্ট তার মৃত্যু হয়। রিশা অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

এ ঘটনায় ওই দিন রিশার মা তানিয়া বেগম বাদী হয়ে রমনা থানায় হত্যাচেষ্টার মামলা করেন। পরে রিশা মারা গেলে এটি হত্যা মামলায় পরিণত হয়।

পুলিশ ওই বছরের ৩১ আগস্ট নীলফামারী থেকে গ্রেপ্তার করে আসামি ওবায়দুলকে। তিনি রিশাকে হত্যা করার কথা স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দেন। এরপর ওই বছরের ১৪ নভেম্বর রমনা থানার পুলিশ মামলার অভিযোগপত্র আদালতে জমা দেয়।

২০১৭ সালের ১৭ এপ্রিল রিশা হত্যা মামলার একমাত্র আসামির বিরুদ্ধে বিচারকাজ শুরু করেন আদালত।

গত ১১ সেপ্টেম্বর মামলার যুক্তিতর্ক শুনানি শেষ হলে রায় ঘোষণার তারিখ ধার্য করেন আদালত। ৬ অক্টোবর রায় ঘোষণার কথা ছিল। কিন্তু সেদিন আসামি না আসায় রায় ঘোষণার তারিখ পিছিয়ে ১০ অক্টোবর ধার্য করেন আদালত। আজ রায় ঘোষণা করা হলো।

ঘাতক ওবায়দুল হ‌কের বাড়ী দিনাজপুর জেলার বীরগঞ্জ উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের মিরাটংগী গ্রামে।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email