সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

রেশমা ও মানবিক পুলিশ এর গল্প

রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার মনাকষা নামক স্থানে এক দরিদ্র পরিবারে বেড়ে ওঠা এগারো বছর বয়সী রেশমা ঈদের আনন্দ ক্ষণে তার পিতা ইসমাইল হোসেনকে পানিতে ডুবে মৃত্যুবরণ করতে দেখে। তার প্রিয় বাবাকে হারিয়ে , এত ছোট বয়সে সবার চোখের পানির সাথে সেও পানি ফেলে। ছোট্ট রেশমার চিন্তাজগতে গভীর অন্ধকার নেমে আসে………..সেই অন্ধকারেই আবার আলোর দেখা পায় ছোট্ট রেশমা। ত্রাতা হিসেবে হাজির হয় গঙ্গাচড়া মডেল থানা, রংপুর এর বিচক্ষণ অফিসার ইনচার্জ সুশান্ত কুমার সরকার। নিজ খরচে তার বাবার লাশ দাফনের কাফনের কাপড় সহ আর্থিক সহায়তা দিয়েছিলেন। যা ছিল তাৎক্ষণিক ঘটনা। সে সময়ই রেশমাকে কাছে টেনে নিয়ে তাকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, তার প্রিয় কিছু তাকে দেবার। রেশমা আজ হাতে পেয়েছে স্কুল ব্যাগ, খাতা ,কলম ,রং পেন্সিল ,আর্ট পেপার ইত্যাদি। রেশমার মুখে আজ হাসির ঝিলিক। রেশমারা এগিয়ে যাবে । আর মানবিক পুলিশেরও জয় হবে। এটাই তো আমরা চাই ।

লেখক-শাকিল শাহনেওয়াজ

উপ-পরিদর্শক বাংলাদেশ পুলিশ গংগাচড়া মডেল থানা , রংপুর

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email