বৃহস্পতিবার ৪ মার্চ ২০২১ ১৯শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

লাভ বেশি হওয়ায় আলু চাষে ঝুঁকেছেন বোদা উপজেলার কৃষকরা

মোঃ লিহাজ উদ্দীন মানিক, বোদা (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি ॥ পঞ্চগড়ের বোদায় অধিক লাভের আশায় আলু চাষে ঝুকে পড়েছে কৃষক। আলুর বাম্পার ফলনের পাশাপাশি ভাল দামেরও আশা করছেন কৃষকেরা। চলতি মৌসুমে এ উপজেলায় ৮শ হেক্টর জমিতে আলু চাষের লক্ষমাত্রা নির্ধারন করা হলেও আলু চাষ অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। চারদিকে শুধু আলু ক্ষেতের সবুজের সমারোহে। মাঠের পর মাঠ জুড়ে শোভা পাচ্ছে আলুর ক্ষেত। কৃষি অফিসের পরামর্শে অধিক ফলনশীল জাতের ডায়মন্ড, এসটেরিক্স, গেনেলা, উপসি ও স্থানীয় জাতের আলু চাষ করা হচ্ছে। স্কয়ার এগ্রো ডেভেলাপমেন্ট প্রসেসিং লিঃ পঞ্চগড় এর সহযোগিতায় উপজেলার বোদা সদর ইউনিয়নের বেংহারী বালাভীড় পোড়াবাড়ি এলাকায় ৫০ একক জমিতে কৃষকদের নিয়ে বীজ আলু উৎপাদন করেছেন। যদিও এখনও পুরোদমে আলু তোলা শুরু হয়নি। তবুও যে সব কৃষক আগাম জাতের আলু চাষ করেছিলেন তারা কিছু কিছু আলু তোলা শুরু করেছেন। আর কিছুদিন পর পুরোদমে আলু তোলা শুরু হবে। তবে চলতি মৌসুমে আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় ও রোগ বালাইয়ের আক্রমন কম থাকায় কৃষকরা আলুর ভালো ফলন পাবেন বলে আশা করছেন। এ ছাড়াও বর্তমানে বাজারে আলুর চাহিদা ও দাম ভাল থাকায় আলু চাষীরা আলু বিক্রির লাভ থেকে কয়েক দফা বন্যায় আমন ধানের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পারবে বলে আশা করছেন। বেংহারী বালাভীর পোড়াবাড়ি এলাকার আলু চাষী মোঃ নজরুল ইসলাম বলেন, আমাদের এলাকার অনেক কৃষক ধান চাষ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছি, আর লোকসান পেতে চাইনা, আলুর ফলন ও দাম দুটোই ভাল তাই আলু চাষ করেছি আশা করছি ভাল ফলন পাবো। এবারে আমি ৫ বিঘা জমিতে আলু চাষ করেছি আলুর গাছ দেখে বাম্পার ফলন হবে বলে আশা করছি। উলীপুকুরী ফকিরপাড়া গ্রামের কৃষক আলু চাষী আলিমুল ইসলাম বলেন, কয়েকদফা বন্যায় আমন ধানসহ আমার ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে,তবে এবারেও আলুর গাছ আমকে নতুন করে সপ্ন দেখাচ্ছে। আলুর বাম্পার ফলন ও ভালো দামে বন্যায় ক্ষতি পুষিয়ে যাবে আশা করছি। এছাড়াও কৃষি অফিসের সার্বিক সহযোগিতা আর পরমর্শের কারনে ঘন কুয়াশায় আলুর তেমন কোন ক্ষতি হয়নি। এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার আল মামুন অর রশিদ জানান, কৃষকদের আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে স¦ল্প খরচে ফসল উ’পাদনে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করছি এবং সার্বক্ষনিক পরামর্শ প্রদান করা হচ্ছে। কৃষকদের আগাম প্রস্তুতির কারনে ঘন কুয়াশা ও প্রচন্ড শীতে আলু ক্ষেতের তেমন কোন ক্ষতি হয়নি। সব মিলে এ বছর আলুর বাম্পার ফলন হবে বলে আশা করছেন কৃষকেরা।
লাভ বেশি হওয়ায় আলু চাষে ঝুঁকেছেন বোদা উপজেলার কৃষকরা
মোঃ লিহাজ উদ্দীন মানিক, বোদা (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি ॥ পঞ্চগড়ের বোদায় অধিক লাভের আশায় আলু চাষে ঝুকে পড়েছে কৃষক। আলুর বাম্পার ফলনের পাশাপাশি ভাল দামেরও আশা করছেন কৃষকেরা। চলতি মৌসুমে এ উপজেলায় ৮শ হেক্টর জমিতে আলু চাষের লক্ষমাত্রা নির্ধারন করা হলেও আলু চাষ অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। চারদিকে শুধু আলু ক্ষেতের সবুজের সমারোহে। মাঠের পর মাঠ জুড়ে শোভা পাচ্ছে আলুর ক্ষেত। কৃষি অফিসের পরামর্শে অধিক ফলনশীল জাতের ডায়মন্ড, এসটেরিক্স, গেনেলা, উপসি ও স্থানীয় জাতের আলু চাষ করা হচ্ছে। স্কয়ার এগ্রো ডেভেলাপমেন্ট প্রসেসিং লিঃ পঞ্চগড় এর সহযোগিতায় উপজেলার বোদা সদর ইউনিয়নের বেংহারী বালাভীড় পোড়াবাড়ি এলাকায় ৫০ একক জমিতে কৃষকদের নিয়ে বীজ আলু উৎপাদন করেছেন। যদিও এখনও পুরোদমে আলু তোলা শুরু হয়নি। তবুও যে সব কৃষক আগাম জাতের আলু চাষ করেছিলেন তারা কিছু কিছু আলু তোলা শুরু করেছেন। আর কিছুদিন পর পুরোদমে আলু তোলা শুরু হবে। তবে চলতি মৌসুমে আবহাওয়া অনুকুলে থাকায় ও রোগ বালাইয়ের আক্রমন কম থাকায় কৃষকরা আলুর ভালো ফলন পাবেন বলে আশা করছেন। এ ছাড়াও বর্তমানে বাজারে আলুর চাহিদা ও দাম ভাল থাকায় আলু চাষীরা আলু বিক্রির লাভ থেকে কয়েক দফা বন্যায় আমন ধানের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে পারবে বলে আশা করছেন। বেংহারী বালাভীর পোড়াবাড়ি এলাকার আলু চাষী মোঃ নজরুল ইসলাম বলেন, আমাদের এলাকার অনেক কৃষক ধান চাষ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছি, আর লোকসান পেতে চাইনা, আলুর ফলন ও দাম দুটোই ভাল তাই আলু চাষ করেছি আশা করছি ভাল ফলন পাবো। এবারে আমি ৫ বিঘা জমিতে আলু চাষ করেছি আলুর গাছ দেখে বাম্পার ফলন হবে বলে আশা করছি। উলীপুকুরী ফকিরপাড়া গ্রামের কৃষক আলু চাষী আলিমুল ইসলাম বলেন, কয়েকদফা বন্যায় আমন ধানসহ আমার ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে,তবে এবারেও আলুর গাছ আমকে নতুন করে সপ্ন দেখাচ্ছে। আলুর বাম্পার ফলন ও ভালো দামে বন্যায় ক্ষতি পুষিয়ে যাবে আশা করছি। এছাড়াও কৃষি অফিসের সার্বিক সহযোগিতা আর পরমর্শের কারনে ঘন কুয়াশায় আলুর তেমন কোন ক্ষতি হয়নি। এ ব্যাপারে উপজেলা কৃষি অফিসার আল মামুন অর রশিদ জানান, কৃষকদের আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে স¦ল্প খরচে ফসল উ’পাদনে কৃষকদের উদ্বুদ্ধ করছি এবং সার্বক্ষনিক পরামর্শ প্রদান করা হচ্ছে। কৃষকদের আগাম প্রস্তুতির কারনে ঘন কুয়াশা ও প্রচন্ড শীতে আলু ক্ষেতের তেমন কোন ক্ষতি হয়নি। সব মিলে এ বছর আলুর বাম্পার ফলন হবে বলে আশা করছেন কৃষকেরা।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email