সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

লালমনিরহাট কারাগার উড়িয়ে দেয়ার হুমকি!

লালমনিরহাট প্রতিনিধি : লালমনিরহাট জেলা কারাগার বোমা মেরে উড়েয়ে দিয়ে সাথী ভাইদের নিয়ে যেতে চিঠি ও মোবাইলে হুমকী দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। নিরাপত্তার জোরদারের পাশাপাশি থানায় জিডি করেছে কারাগার কর্তৃপক্ষ।

রোববার(১৩ সেপ্টেম্বর) রাতে এ ঘটনায় লালমনিরহাট সদর থানায় একটি সাধারন ডায়েরী(জিডি) করেছেন কারাগার কর্তৃপক্ষ।

কারাগারের একটি নির্ভরযোগ্য সুত্র জানায়, গত সপ্তাহে একটি উড়ো চিঠি লালমনিরহাট কারাগারের জেল সুপার ও জেলা প্রশাসককে পাঠানো হয়। সেই চিঠিতে কারাগার উড়িয়ে দিয়ে সাথী ভাইদের ছিনিয়ে নেয়ার হুমকী দেয় দুর্বৃত্তরা। চিঠিটি আমলে নিয়ে কারাগারের নিরাপত্তা জোরদারের পাশাপাশি ঘটনাটি তদন্ত শুরু করে প্রশাসন।

এরই মাঝে শনিবার(১২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে জেল সুপার কিশোর কুমার নাগকে একটি টেলিটক নম্বর হতে ফোন করে একই ভাবে হুমকি দেয়া হয়। বলা হয় যেকোন মূল্যে জেলখানা হতে তাদের সাথী ভাইদেরকে মুক্ত করা হবে। উড়িয়ে দেয়া হবে কারাগার।

মোবাইল ফোনে এমন কলের পরপরেই কারাগারের রাস্তাসহ আশপাশের নিরাপত্তার জোরদার করা হয়। হঠাৎ নিরাপত্তার জোরদার হলে বিষয়টি প্রকাশ পায়। মোবাইল ফোন ও চিঠিতে হুমকী দেয়ার ঘটনায় রোববার(১৩ সেপ্টেম্বর) রাতে লালমনিরহাট সদর থানায় একটি সাধারন ডায়েরী(জিডি) করেন কারাগার কর্তৃপক্ষ।

লালমনিরহাট সদর থানা অফিসার ইনচার্জ শাহ আলম বলেন, গোপনীয়তার স্বার্থে এ বিষয়ে সিনিয়র অফিসার সাথে কথা বলে জানানো হবে।

লালমনিরহাট কারাগারের জেল সুপার কিশোর কুমার নাগ জানান, জিডি আমাদের নিরাপত্তার একটি অংশ। সারাদেশে জেলখানার নিরাপত্তা সব সময় থাকে। নিরাপত্তার বিষয়গুলো ডিসকাস করা হয় না।

তিনি আরো বলেন, ১৯০ জনের ধারন ক্ষমতার এ কারাগারে এখন পর্যন্ত ৪৬৬জন আসামী ও কয়েদী রয়েছেন। যার মধ্যে নাশকতার বিভিন্ন মামলায় জঙ্গী সংগঠনের সক্রিয় সদস্য ২০ জন বন্দি রয়েছে।

লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক আবু জাফর বলেন, এমন হুমকী দিয়ে গত সপ্তাহে আমার কাছে ও জেল সুপারের কাছে একটি করে চিঠি আসে। এরপর জেল সুপারকে মোবাইলে হুমকী দেয়া হলে জিডি করা হয়েছে। পুরো বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। কারাগারে নিরাপত্তাও জোরদার করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email