শনিবার ৬ জুন ২০২০ ২৩শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শান্ত হলো সেই মহিষটি

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরে ছুটে যাওয়া সেই ক্ষিপ্ত মহিষটিকে ২৫ ঘণ্টা পর নিবৃত্ত করা হয়েছে। ঢাকা থেকে যাওয়া প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের একটি বিশেষ দল মঙ্গলবার দুপুরের দিকে ভূঞাপুর উপজেলার আলোয়া ইউনিয়নের নিকলা বিলে অবস্থানরত মহিষটিকে ইনজেকশন দিয়ে নিস্তেজ করে।

পরে সেটিকে উদ্ধার করে মালিকের কাছে হস্তান্তর করা হয়। মহিষটিকে দেখতে ভিড় জমায় হাজারো উৎসুক জনতা।  সোমবার সারাদিন সারারাত চেষ্টা করেও মহিষটিকে উদ্ধার করা যায়নি। মহিষটির গুঁতায় অন্তত ১১ জন আহত হন।

ভূঞাপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শামছুল ইসলাম বলেন, মহিষটিকে উদ্ধারের জন্য ঢাকা থেকে প্রাণিসম্পদের একটি টিম আসে। পরে তারা নৌকায় করে নিকলা বিলে গিয়ে মহিষটিকে ইনজেকশন পুশ করে। ধীরে ধীরে মহিষটি দুর্বল হয়ে গেলে সেটিকে উদ্ধার করে মালিকের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এরইমধ্যে মহিষটিকে নিয়ে বাড়ি চলে গেছেন তার মালিক। বুধবার দুপুরের পরে এটিকে কুরবানি করা হতে পারে।

তিনি আরও বলেন, ঈদ উপলক্ষে জেলার ঘাটাইলের যুগিহাটি গ্রামের কয়েকজন মিলে কুরবানির জন্য মহিষটিকে কেনেন। এটিকে রাখা হয় স্থানীয় আরিফুল সরকারের বাড়িতে। সোমবার কুরবানি দেওয়ার সময় হঠাৎ লাফিয়ে উঠে সেখানে থাকা বেশ কয়েকজনকে আহত করে মহিষটি ভূঞাপুর উপজেলার কাগমারি পাড়ার চরে চলে যায়। 

সন্ধ্যার দিকে মহিষটিকে নিবৃত্ত করতে এক রাউন্ড গুলি ছোড়া হয়। তবে গুলিটি লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। এরপর হাজারো মানুষ চলে এলে আর গুলি করা সম্ভব হয়নি। পরে রাতে মহিষটি কাগমারি থেকে অলোয়া ইউনিয়নের নিকলা বিলে চলে যায়।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email