শনিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৮ ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

শিক্ষাক্ষেত্রে যুগান্তকারী পরিবর্তন হয়েছে : শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, বর্তমান সরকার শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নে সরকার নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সাথে কাজ করে যাচ্ছে। ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের শিক্ষাক্ষেত্রে যুগান্তকারী পরিবর্তন হয়েছে।’

মঙ্গলবার বিকালে রাজধানীতে জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমী (নায়েম) মিলনায়তনে ‘সেকেন্ডারি এডুকেশন সেক্টর ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রাম’ (সেসিপ) আয়োজিত ‘মাধ্যমিক শিক্ষার মানোন্নয়নে সেসিপ-এর মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময়’ শীর্ষক আলোচনাসভায় প্রদান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ করে বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে। তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে প্রতিবন্ধক সৃষ্টি করতেই তাকে হত্যা করা হয়। আমাদের সৌভাগ্য বঙ্গবন্ধুর দুইকন্যা শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা ওইসময় বিদেশে থাকায় তাঁদের জীবন রক্ষা পায়।

নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, দেশকে উন্নয়ন ও অগ্রগতির পথে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্যে বিগত ২০০৮ সালের ডিসেম্বরের নির্বাচনের আগে দিনবদলের কর্মসূচি দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এর নাম করা হয়েছিল রূপকল্প-২০২১।

বর্তমানে ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়িত হচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমাদের যুগের সবচেয়ে বড় হাতিয়ার জ্ঞান ও প্রযুক্তির ওপর দক্ষতা।’ কৃষি, খাদ্য, শিক্ষা, স্বাস্থ্য প্রভৃতি ক্ষেত্রে বর্তমান সরকারের সাফল্য তুলে ধরে তিনি বলেন, সহ¯্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্য (এমডিজি) অর্জিত হয়েছে। এখন টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য (এসডিজি) অর্জনের জন্য কাজ হচ্ছে। বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত (এলডিসি) থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ার যোগ্যতা অর্জন করেছে। পদ্মা সেতুর কাজ এগিয়ে চলেছে। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার কারিগরি ও কর্মমুখী শিক্ষার ওপর গুরুত্ব দিয়েছে। ইতোমধ্যে কারিগরি শিক্ষার হার ১৪ শতাংশে উন্নীত হয়েছে। সরকার মাদ্রাসা শিক্ষার উন্নয়নেও কাজ করছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

সেসিপ-এর যুগ্ম কর্মসূচি পরিচালক মো. আবু ছাইদ শেখ (অতিরিক্ত সচিব)-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) মো. মহিউদ্দীন খান, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (রুটিন দায়িত্ব) এবং পরিচালক, কলেজ ও প্রশাসন, অধ্যাপক মোহাম্মদ শামছুল হুদা এবং নায়েম-এর মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক।

-বাসস।