শনিবার ৩০ মে ২০২০ ১৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিও ভুক্তির দাবিতে দিনাজপুরে বাকবিশিসের মানববন্ধন

রফিকুল ইসলাম ফুলাল ॥ ২০১৮ সালের এমপিও নীতিমালা সংশোধন করে নন-এমপিওভুক্ত স্কুল কলেজ ও অনার্স কোর্সের এমপিও ভুক্তির দাবিতে এবং শিক্ষাঙ্গনে হত্যা, সন্ত্রাস, খুন, ধর্ষণের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে বাংলাদেশ কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি (বাকশিস) দিনাজপুর জেলা শাখা।

বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টায় দিনাজপুর প্রেসক্লাব সম্মুখ সড়কে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন নন-এমপিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা অংশগ্রহণ করেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ‘দেশের উন্নয়নে শিক্ষার যে ভূমিকা তা অকল্পনীয়। কিন্তু আমাদের অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আছে যেগুলো এমপিও ভুক্ত করে ওই এলাকার মানুষের মধ্যে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেওয়া। অনেক প্রতিষ্ঠান আছে যেগুলো এমপিও ভুক্তির জন্য যোগ্য নয় সেগুলোও এমপিও ভুক্ত হয়েছে। অথচ আমাদের দিনাজপুরে অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এমপিও ভুক্তির জন্য যোগ্য কিন্তু সেসব প্রতিষ্ঠান কেন এমপিও ভুক্ত হলো না সেটা আমাদের অজানা।’

মানববন্ধনে বিশেষ বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি (বাকবিশিস) দিনাজপুর জেলা শাখার সভাপতি ও বিরল মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ সুফিয়া নাহার মঞ্জু। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে পদ্মা সেতু হচ্ছে, বড় বড় বিদ্যুৎ কেন্দ্র হচ্ছে, সরকার গরীব মানুষকে ১০ টাকায় চাল খাওয়াচ্ছে, সারা দেশে রাস্তা নির্মাণ হচ্ছে, মেট্টোরেল হচ্ছে অথবা যারা দেশ গড়ার কারিগর তাদের দিকে সরকার সঠিকভাবে নজর দিচ্ছে না। আমরা চাই সরকার সবার আগে শিক্ষা ব্যবস্থার দিকে নজর দিক। আমাদের যেসব প্রতিষ্ঠান এমপিও ভুক্তির যোগ্য যেগুলোকে এমপিওভুক্তি করুক।’

মানববন্ধনে আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি (বাকশিস) দিনাজপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও দিনাজপুর সংগীত কলেজের প্রভাষক বদিউজ্জামান বাদল। সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘যতদিন দেশের মানুষ সুষম বন্টনের মাধ্যমে নিজেদের যোগ্যতায় বিবেচনা করা হবে না ততদিন আমাদের পরিবর্তন সম্ভব না। আমরা সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সময় দেই। শিক্ষার্থীদের মানুষ গড়ার কারিগর হিসেবে কাজ করি কিন্তু আমাদের সাথেই অবহেলা করা হয়। তিনি বলেন, ‘সরকার যেন অবশ্যই যোগ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে এমপিও ভুক্তির তালিকা করে।’ এছাড়াও মানববন্ধনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অস্থিতিশীল পরিবেশ সৃষ্টি, হত্যা, সন্ত্রাস, খুন, ধর্ষণ,  যেন না হয় সেদিকেও সরকারের দৃষ্টি দেওয়ার আহ্বান জানান শিক্ষকরা।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email