মঙ্গলবার ১৮ ডিসেম্বর ২০১৮ ৪ঠা পৌষ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

শিশু জিহাদের মৃত্যুর গল্পে জাজের সিনেমা

বছর চারেক আগে ফিরে গেলে একটি ঘটনা সবার মনেই নাড়া দেয়। সেটা হচ্ছে শিশু জিহাদের মর্মান্তিক মৃত্যু। ২০১৪ সালের ২৬ ডিসেম্বর, রাজধানীর খিলগাঁওয়ের শাহজাহানপুরের রেল কলোনিতে খেলছিলো পাঁচ বছরের শিশু জিহাদ। খেলতে খেলতে ওয়াসার একটি পরিত্যক্ত নলকূপে পড়ে যায় সে। দীর্ঘ ২৩ ঘণ্টা উদ্ধারের চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয় ফায়ার সার্ভিস। পরে স্থানীয় লোকজনের চেষ্টায় উদ্ধার করা হয় জিহাদকে।

উদ্ধারের পর শিশু জিহাদকে নিয়ে যাওয়া হয় হাসপাতালে। কিন্তু চিকিৎসক জানায়, অনেক আগেই পৃথিবী থেকে বিদায় নিয়েছে জিহাদ। এই ঘটনায় গোটা দেশের মানুষের মনকে নাড়া দেয়। সেই মর্মান্তিক মৃত্যুর গল্পেই এবার সিনেমা নির্মাণ হতে চলেছে।

জিহাদের মৃত্যুর ঘটনা নিয়ে সিনেমা নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে দেশের শীর্ষস্থানীয় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া। প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার আব্দুল আজিজ বলেন, সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে দেশের অভ্যন্তরে ঘটে যাওয়া নানান বাস্তব ঘটনার উপর ভিত্তি করে চলচিত্র নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। যাতে করে আমাদের মাঝে সামাজিক সচেতনতা বাড়ে। ‘দহন’ সিনেমাটি ছিল সেই যাত্রার দ্বিতীয় পদক্ষেপ। মুক্তির পর থেকেই দর্শকদের যে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি তা আমাদের সাহস যোগাচ্ছে এই পথে এগিয়ে যাওয়ার। এভাবে নিয়মিত বাংলাদেশে ঘটে যাওয়া বাস্তব ঘটনাগুলোকে আমরা রুপালী পর্দায় তুলে আনতে চাই। এখন থেকে আপনাদের জীবনের গল্পগুলোই হবে আমাদের চলচিত্র নির্মাণের উপজীব্য বিষয়।

আব্দুজ আজিজ জানান, শিশু জিহাদের গল্পের মূল ভাবনাটি তার নিজের। এর কাহিনি ও সংলাপ লিখবেন নাজিম উদ দৌলা। তবে সিনেমাটির নাম ও পরিচালক এখনো চূড়ান্ত হয়নি। উপযুক্ত নামের জন্য সাধারণ মানুষের কাছেও আহ্বান করা হয়েছে।