বুধবার ৩ জুন ২০২০ ২০শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সড়কেই সন্তান প্রসব

গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধা মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে এক প্রসূতিকে নেয়া হয়। কিন্তু চিকিৎসক ওই প্রসূতিকে ফিরিয়ে দেন। পরে বাধ্য হয়ে সড়কেই সন্তান প্রসব করেন ওই মা।

সোমবার রাতে গাইবান্ধা মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র থেকে ২০০ গজ দূরে মধ্যপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে। ওই মায়ের নাম মিষ্টি আকতার। তিনি সদর উপজেলার লক্ষ্মীপুর ইউপির গোবিন্দপুর গ্রামের আব্দুর রশিদের স্ত্রী।

ভুক্তভোগীর স্বামী আব্দুর রশিদ জানান, তার স্ত্রীর প্রসব ব্যথা উঠলে অটোরিকশায় গাইবান্ধা মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রে আনেন। সেখানে কোনো পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়াই তার স্ত্রীকে অন্যত্র নিতে বলেন শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের কর্মী তৌহিদা বেগম। স্বজনরা বিষয়টি নিয়ে একাধিকবার অনুরোধ করলেও গুরুত্ব দেয়নি কর্তৃপক্ষ।

তিনি আরো জানান, অন্যত্র নেয়ার সময় হাসপাতালের ২০০ গজ দূরে মধ্যপাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের সড়কে তার স্ত্রী সন্তান প্রসব করেন। এ সময় ক্ষিপ্ত হয়ে মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্র ঘেরাও করে স্থানীয়রা। পরে বাধ্য হয়ে শিশু কল্যাণ কেন্দ্র কর্তৃপক্ষ তার স্ত্রীকে চিকিৎসা দেয়।

সমাজসেবক ওয়াজিউর রহমান র‌্যাফেল বলেন, মাতৃসদনের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা মাঝেমধ্যেই এ ধরনের ঘটনা ঘটান। রোগী না দেখেই ক্লিনিকগুলোতে যাওয়ার পরামর্শ দেন।

ওয়ার্ড কাউন্সিলর শহিদ আহমেদ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেন এবং সংশ্লিষ্টদের যথাযথ চিকিৎসা দেয়ার আহবান জানান। তিনি বলেন, করোনা আতঙ্কে কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারী রোগীদের সঙ্গে এ ধরনের আচরণ করলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email