মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ ৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

সিআরপি গরীব, অসহায়, প্রতিবন্ধী এবং পক্ষাঘাতগ্রস্তদের পুনর্বাসনে কাজ করে যাচ্ছে-সিআরপি প্রতিষ্ঠাতা ভ্যালোর অ্যান্ড টেইলর

কাশী কুমার দাস, স্টাফ রিপোর্টার ॥ ২৫ জানুয়ারি শনিবার চিরিরবন্দর উপজেলার ঘুঘুরাতলীস্থ আমেনা বাকী রেসিডেন্সিয়াল কলেজ আয়োজিত সিআরপি’র প্রতিষ্ঠাতা ভ্যালোর অ্যান্ড টেইলর-এর আগমন উপলক্ষে সাংবাদিক ও সুধীজনের সাথে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক ব্রিটিশ সরকারের অর্ডার অব দ্যা ব্রিটিশ এমপায়ার পদকে ভূষিত এবং বাংলাদেশে নাগরিকত্ব প্রাপ্ত সিআরপি’র প্রতিষ্ঠাতা ভ্যালোর অ্যান্ড টেইলর বলেন, ছোটবেলা থেকে আমার স্বপ্ন ছিল গরীব অসহায় ও প্রতিবন্ধী মানুষের জন্য কাজ করার এবং তাদের পাশে দাঁড়ানো। ১৯৭৯ সালে বাংলাদেশে এসে দেখি এখানে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের চিকিৎসা ও পুনর্বাসনের তেমন কোন ব্যবস্থা নেই। এমনকি তাদের ঘিরে সামাজিক এবং অর্থনৈতিক কুসংস্কারও ছিল। তাদের জীবন যাপন, চলাফেরা, শিক্ষা ও চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম এবং জীবন যাত্রার মান উন্নয়ন, চিকিৎসার কোন ব্যবস্থা ছিল না তাই আমি বাংলাদেশে সিআরপি প্রতিষ্ঠা করি। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আমেনা বাকি স্কুল এন্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান ডাঃ আমজাদ হোসেন। তিনি বলেন, সিআরপি’র রাজশাহী বিভাগে শাখা রয়েছে। আমাদের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন আপনার মাধ্যমে রংপুর বিভাগে বিশেষ করে দিনাজপুরে একটি সিআরপি শাখা প্রতিষ্ঠা করার। যাতে এ অঞ্চলের গরীব, অসহায়, প্রতিবন্ধী ও পক্ষাঘাতগ্রস্থ মানুষরা অল্প অর্থে সিআরপি শাখার মাধ্যমে চিকিৎসা করাতে পারে। এ সময় ভ্যালোর অ্যান্ড টেইলর এর সাথে ব্রিটিশ শিক্ষক এনডিউ মাইকেল রকফড, সিআরপি ডাঃ আবু বক্কর সরকার, ডাঃ আমজাদ হোসেনের সহধর্মীনি মিসেস ডাঃ শামীমা আমজাদ, এবি ফাউন্ডেশনের পরিচালক শামসুল হক, প্রধান শিক্ষক মোঃ মিজানুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর নাগরিক উদ্যোগের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ। মতবিনিময় সভায় সাংবাদিকরা এবং স্থানীয় সুধীজনেরা ভ্যালোর অ্যান্ড টেইলর-কে প্রশ্ন করলে তিনি তার উত্তর দেন।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email