শনিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৮ ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

সৈয়দপুরে মারপিটের ঘটনায় মামলা : দোকান তালাবদ্ধ

মো. জাকির হোসেন সৈয়দপুর(নীলফামারী)সংবাদদাতা : নীলফামারীর সৈয়দপুরে কাপড় ব্যবসায়ীদের সাথে তেল ব্যবসায়ীর মারপিটের ঘটনায় পুলিশ উভয় পক্ষের ৫ জনকে আটক করেছে। এই ঘটনার প্রতিবাদে বাণিজ্যিক শহর সৈয়দপুরে বৃহস্পতিবার ( ১৭ মে) সকাল থেকে সকল কাপড়ের দোকান বন্ধ রাখা হয়। দুপুরে সমঝোতা বৈঠকের পর পুলিশ অশফাক ও মোস্তাক নামে দুই ব্যবসায়ীকে ছেড়ে দেয়।

শহরের রেলওয়ে বাজারের আশফাক ক্লথ স্টোরের মালিক কর্মচারীরা আগের রাতে সড়কে রাখা তেলের ড্রাম সরাতে বলেন মান্নান নামে জনৈক তেল ব্যবসায়ীকে। এনিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের মারপিটের ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে গেলে তাদের উপর চড়াও হন মারপিটকারীরা। পরে থানা পুলিশ বাসা থেকে কাপড় ব্যবসায়ী আশফাক (৫৫), তাঁর ছোট ভাই মোস্তাক (৪৫), কর্মচারি মাসুম (৩০), সোহেল (২৮) ও তেল ব্যবসায়ীর ছেলে আদনান (৩৫) কে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। এর মধ্যে ওই দুই ব্যবসায়ীকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

এই ঘটনার প্রতিবাদে এবং সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে শহরের সকল কাপড়ের দোকান ওইদিন দোকানপাট বন্ধ রেখেছেন।

সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহজাহান পাশা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এই ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। এনিয়ে সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের উদ্যোগে এক সমঝোতা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। এতে সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোখছেদুল মোমিন, সৈয়দপুর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অশোক কুমার পাল, সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহজাহান পাশাসহ ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভায় বিষয়টি দেখার আশ্বাস দেওয়া হলেও এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দোকান মালিকরা কর্মসূচি প্রত্যাহার করেননি।

ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করে বলেন, তেল ব্যবসায়ীর মান্নানের দোকানে পৌরসভার কর্মকর্তা কর্মচারীরা নতুন করে তালা দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছে।

এ বিষয়ে পৌর কর্মচারী নাদিমের কাছে জানতে চাইলে তিনি এ বিষয়ে মন্তব্য করতে রাজী হননি। তিনি বলেন, বিষয়টি মেয়র সাহেব জানেন।

এদিকে পৌরসভা কর্তৃক দোকানে তালা দেয়ায় ব্যবসায়ীদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।