শনিবার ১১ জুলাই ২০২০ ২৭শে আষাঢ়, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

স্লোডেনের ঘটনা সামাল দিতে আমেরিকার ব্যয় হবে শত শত কোটি ডলার

মার্কিন সশস্ত্র বাহিনীর জয়েন্ট চিফস অব স্টাফের চেয়ারম্যান জনোরেল মার্টিন ডেম্পসি বলেছেন, দেশটির সাবেক গোয়েন্দা কর্মকর্তা এডওয়ার্ড স্নোডেন যে সব গোপন তথ্য ফাঁস করে দিয়েছেন তা সামাল দিতে পেন্টাগনের শত শত কোটি ডলার ব্যয় হবে। তিনি মার্কিন হাউস আর্মড সার্ভিস কমিটিকে এ কথা জানিয়েছেন। স্নোডেনের তথ্য ফাঁসের ফলে কতটা ক্ষতি হয়েছে তা খতিয়ে দেখতে একটি টাস্ক ফোসের্র দু’বছর সময় লাগবে বলেও জানান জনোরেল ডেম্পসি। তিনি বলেন, নিরাপত্তা  সংক্রান্ত তথ্য ফাঁস হয়ে যাওয়ায় ফলে যে অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে তা কাটিয়ে উঠতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে হয়ত শত শত কোটি ডলার ব্যয় করতে হবে। স্নোডেনের তথ্য ফাঁসের ঘটনা কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করছে আমেরিকা এবং এরই মধ্যে তা কাটিয়ে ওঠা গেছে বলেও তিনি দাবি করেন। মার্কিন সরকারের ১৭ লাখ গোপন কাগজ-পত্র স্নোডেন ফাঁস করে দিয়েছেন এবং এর বেশিরভাগই সামরিক বিষয়ক বলে জানান জনোরেল ডেম্পসি। এসব কাগজ-পত্র কিভাবে ব্যবহার হতে পারে এবং এই ক্ষতি কি করে কমানো যায় তা খতিয়ে দেখার জন্য পেন্টাগণ একটি টাস্ক ফোঁর্স গঠন করেছে। সাবেক গোয়েন্দা কর্মকর্তা এডোয়ার্ড স্নোডেন গত বছরের আগস্টে আমেরিকার জাতীয় নিরাপত্তা সংস্থা-এনএসএ’র গুপ্তচরবৃত্তির অনেক ঘটনা ফাঁস করে দেয়ায় আমেরিকার জনগণ সরকারের বিরুদ্ধে ভীষণ ক্ষুব্ধ হয়েছে। পাশাপাশি বিশ্বের বহু দেশের সঙ্গে ওয়াশিংটনের সম্পকের্র অবনতি হয়েছে। তার ফাঁস করে দেয়া তথ্য থেকে জানা যায়, প্রিজম কর্মসূচির আওতায় ফেসবুক, গুগল, মাইক্রোসফট, ইয়াহু, ইউটিউব এবং অ্যাপলসহ ইন্টারনেটভিত্তিক বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সার্ভারে সরাসরি ঢুকে তথ্য সংগ্রহ করে এনএসআই ও ফেডারেল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন- এফবিআই।

 

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email