বৃহস্পতিবার ২৯ অক্টোবর ২০২০ ১৩ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

হিলির নদীতে ফেলা হচ্ছে পচা পেঁয়াজ!

ভারত সীমান্তে পেঁয়াজবোঝাই ট্রাকগুলো গত ১ সপ্তাহ ধরে বাংলাদেশের অভিমুখে দাঁড়িয়ে থাকলেও রফতানির কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। ফলে রোববার ও সোমবার দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে পেঁয়াজ আমদানি বন্ধ রয়েছে। এতে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা।

এদিকে, হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আসা বিভিন্ন পণ্যবাহী ভারতীয় ট্রাকের চালক বলেন, সীমান্তের ওপারে ভারতের হিলির বালুপাড়া পার্কিংয়ে পেঁয়াজবোঝাই শতাধিক ট্রাক দাঁড়িয়ে থাকতে দেখিছে। গত ১ সপ্তাহ ধরে লোড অবস্থায় দাঁড়িয়ে থাকার কারণে প্রতি ট্রাকে ৩-৪ টন করে পেঁয়াজ পচে গেছে। সেসব পেঁয়াজ সেখানকার ছোট যমুনা নদীতে ফেলে দিচ্ছেন ব্যবসায়ীরা।

হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রফতানি গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ জানান, ভারতীয় কর্তৃপক্ষ গত ১৪ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ দেয়। এরপর ১৮ সেপ্টেম্বর এক সিদ্ধান্তে তারা জানায় শুধু মাত্র ১৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এলসি করা পেঁয়াজ হিলি স্থলবন্দর দিয়ে রফতানি করা হবে। এই পরিপ্রেক্ষিতে গত শনিবার এ বন্দর দিয়ে ২৪৬ মেট্রিকটন পেঁয়াজ আমদানি করা হয়। যার মধ্যে অধিকাংশই পচে নষ্ট হয়েছে। তবে ১৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এলসি করা ১০ হাজার মেট্রিকটন পেঁয়াজ রফতানির অনুমতি না দেয়ায় এসব পেঁয়াজের চালান সীমান্তে আটকে আছে।

তিনি বলেন, আমরা ভারতের ব্যবসায়ীদের বলেছি আপনারা আপনাদের সরকারের ওপর চাপ সৃষ্টি করুন। আজ-কালের মধ্যে আমাদের পেঁয়াজ দেয়া না হলে আমরা এ পচা পেঁয়াজ নেব না বলে জানিয়েছি। এ পেঁয়াজ নিয়ে এরইমধ্যে আমরা অর্ধকোটি টাকা লোকসানে পড়েছি।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email