সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯ ৭ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

৩৭ প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেল নিরব-জয়রাজের‘আব্বাস’

আজ শুক্রবার সারাদেশের ৩৭ টি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাচ্ছে নিরব অভিনীত ‘আব্বাস’সিনেমাটি। ছবি প্রথমবার নিরবের সাথে জুটি বেঁধেছেন সোহানা সাবা। সিনেমাটির খল চরিত্রে অভিনয় করেছেন জয়রাজ। এটি পরিচালনা করেছেন সাইফ চন্দন। ইতোমধ্যে সিনেমাটির মুক্তি উপলক্ষে প্রচার-প্রচাণা চালানো হয়েছে।

প্রচারণার অংশ হিসেবে পোস্টার, সিনেমার গান ও ট্রেইলার প্রকাশ করা হয়। সিনেমার প্রথম লুকেই নিরবকে লুফে নেয় দর্শকরা। এরপর ট্রেইলার প্রকাশের পর সিনেমাটি আরো দর্শকের আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়। অনেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সিনেমাটি নিয়ে প্রশংসা করেন। এছাড়াও এ ছবিতে খলচরিত্রে অভিনয় করা অভিনেতা ভিলেন জয়রাজের উপর বেশ আস্থা রাখছেন নির্মাতা। তারই ধারাবাহিকতায় দর্শকের আগ্রহ তৈরি হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে ছবির জয়রাজ বলেন, এ ছবির প্রত্যেক চরিত্রের আলাদা আলাদা টুইস্ট আছে। মূলত পুরান ঢাকার বেশকিছু কাহিনী নিয়ে এ ছবিটি নির্মিত হয়েছে। আন্ডার ওয়ার্ল্ডের অপকর্ম, রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট এবং একজন গ্যারেজ মালিক কী ভাবে রানৈতিক দলের নেতা হয়ে সারা শহরে অপকর্ম করে বেড়ান তা তুলে ধরা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, সিনেমাটির মাধ্যমে দর্শকের বেশকিছু ম্যাসেজ দেওয়া হয়েছে। একজন সন্ত্রাসীর জন্ম ও তার পতন কীভাবে হয় তা দেখানো হয়েছে এই সিনেমায়। আশাকরি সিনেমাটি দর্শকেরা ভালোভাবে গ্রহণ করবেন।

চিত্রনায়ক নিরব বলেন, ‘আব্বাস’ নির্মাণে ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। এর গল্পের সঙ্গে নির্মাণে রয়েছে আধুনিকতা। তাই সিনেমাটির প্রদর্শন যথাযথভাবে হওয়া দরকার। চাইলে আরও অনেক বেশি হলে মুক্তি দেওয়া যেত সিনেমাটি। তবে আমরা চাইছি, ভালো মানের সিনেমা হলগুলোতে দিতে। যাতে দর্শকরা সিনেমাটি দেখে মজা পান। তবে আশা করছি পরবর্তী সপ্তাহ থেকে আরও বেশি হলে ‘আব্বাস’ ছড়িয়ে দিতে পারব।

প্রথম সপ্তাহে ‘আব্বাস’ যেসব হলে দেখা যাবে: ঢাকা- স্টার সিনেপ্লেক্স (বসুন্ধরা), ব্লক বাস্টার সিনেমাস (যমুনা), মধুমিতা, বলাকা, রাজমনি, সেনা, শাহীন, পুনম, এশিয়া, গীত, মুক্তি ও পূরবী।

ঢাকার বাইরে- চম্পাকলি (টংগী), বর্ষা (জয়দেবপুর), রানিমহল (ডেমরা), গুলশান (নারায়নগঞ্জ), নিউ গুলশান (জিঞ্জিরা), দর্শন (ভৈরব), শাপলা (রংপুর), মানসী (কিশোরগঞ্জ), মাধবী(মধু পুর), রজনীগন্ধা (চালা), রুপকথা (শেরপুর), আলমাস (চট্টগ্রাম), অভিরুচি (বরিশাল), পুরবী (ময়মনসিংহ ), রাজিয়া (নাগরপুর), মালঞ্চ (টাঙ্গাইল), শংখ (খুলনা), লিভার্টি (খুলনা), বনলতা (ফরিদপুর), রাজ (কুলিয়ারচর), বিজিবি (সিলেট), হ্যাপী (লক্ষীপুর), মুন (হোমনা), মেহেরপুর টকিজ (মেহেরপুর) ও মোহন (হবিগঞ্জ)।

ঢাকা ফিল্মস অ্যান্ড এন্টারটেইনমেন্ট প্রযোজিত এই ছবিতে নিরবের, সোহানা সাবা, জয়রাজ। এছাড়াও আরও অভিনয় করেছেন সূচনা আজাদ, আলেকজান্ডার বো, পাপিয়া, ডন, ইলোরা গহর, সমাপ্তি মাসুক ও জয়রাজ।