শনিবার ১৭ নভেম্বর ২০১৮ ৩রা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

৩ লক্ষ ২৮ হাজার ১৭৯ জনকে ভিটামিন “এ” ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে-সিভিল সার্জন

কাশী কুমার দাস, স্টাফ রিপোর্টার ॥ ১১ জুলাই দিনাজপুর সিভিল সার্জন কার্যালয় আয়োজিত এবং জাতীয় পুষ্টি সেবা ও জনস্বাস্থ্য পুষ্টি অধিদপ্তর, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় আগামী ১৪ই জুলাই জাতীয় ভিটামিন “এ” প্লাস ক্যাম্পেইন (১ম রাউন্ড) উপলক্ষে সাংবাদিকদের সাথে ওরিয়েনটেশন কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

দিনাজপুর সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুস এর সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডাঃ আরোজ উল্লাহ। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক গোলাম নবী দুলাল, এমওসিএস ডাঃ মোঃ লায়হান সাঈদ, এনআই জেলা কো-অর্ডিনেটর রায়হানা ইসলাম। সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করন সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা অফিার মোঃ সাইফুল ইসলাম। সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন জেলা ইপিআই কার্যক্রমের সুপারিনটেনডেন্ট মোঃ ইছামুদ্দিন। সভাপতির বক্তব্যে সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুস সাংবাদিকদের জানান, এবারের লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে ৬-১১ মাস বয়সী শিশুর সংখ্যা ৩৬০৩৪ জন (প্রতিটি শিশুকে ১টি নীল রংঙের ক্যাপসুল) এবং ১২-৪৯ মাস বয়সী শিশু ২৯২১৪৫ জন (প্রতিটি শিশুকে ১টি লাল রংঙের ভিটামিন এ ক্যাপসুল)। জাতীয় ভিটামিন “এ” প্লাস ক্যাম্পেইনকে সফল করতে দিনাজপুর জেলায় স্থায়ী কেন্দ্র করা হয়েছে ১৩টি, অস্থায়ী কেন্দ্র ২৫৮৯টি এবং অতিরিক্ত কেন্দ্র (উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে ১৪১টি। মোট ২৭৫৩টি কেন্দ্র করা হয়েছে। তনি সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে বলেন, ভিটামিন “এ” এর অভাব জনিত রাতকানা রোগের প্রাদুর্ভাব এক শতাংশের নীচে কমিয়ে আনা এবং তা অভ্যাহত রাখা। শিশুদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির মাধ্যমে অপুষ্টি জনিত মৃত্যু প্রতিরোধ করা। এছাড়া তিনি জন্মের পর পরই নবজাতককে শাল দুধসহ মায়ের দুধ খাওয়ানোর উপর গুরুত্ব আরোপ করেন।