বৃহস্পতিবার ২ এপ্রিল ২০২০ ১৯শে চৈত্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

৬০ লাখ হত দরিদ্র মানুষকে ঘর তৈরি করে দেয়া হবে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রান মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী

সাহেব, দিনাজপুর ॥ দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রান মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান এমপি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে দেশের ৬০ লাখ হত দরিদ্র মানুষকে ঘর তৈরি করে দেয়ার কথা উল্লেখ করে বলেছেন, শীতে মানুষ যেন কষ্ট না পায় সেজন্য প্রধানমন্ত্রী আমাকে প্রতিটি ঘরে ঘরে হতদরিদ্রদের মাঝে শীত বস্ত্র পৌছে দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি বলেন, ৬৮ হাজার গ্রামে ২১ কোটি টাকা ব্যয়ে ৬৮ হাজার ঘর করে দেয়া হবে। ইতিমধ্যেই ২৩ হাজার কোটি টাকায় ১১ হাজার ৪০৪টি ঘর দেয়া হয়েছে। এরপর ২০২০-২১ সালে আরও ৫০ হাজার ঘর হতদরিদ্রদের বরাদ্দ দেয়ার প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে। মন্ত্রী দুর্ণীতি, অর্থ লুটপাট ও অগ্নীসংযোগের জন্য বিএনপি-জামায়াতকে দায়ি করে বলেন, দিনাজপৃুরে জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিমের আবেদনে ২৭৮ একর জমিতে অর্থনৈতিক জোন হবে। এছাড়াও দিনাজপুরে আইটি পার্ক হচ্ছে। ১ হাজার বেকার যুবক যুবতীদের কর্মস্থান হবে। এতে অর্থের সঞ্চালন ঘটবে। দিনাজপুরে দারিদ্রতা থাকবে না। তিনি বলেন, দুর্যোগ ও ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হতদরিদ্র মানুষদের কাছে পৌছে গেছেন। তিনি ক্ষুদা ও দারিদ্রমুক্ত দেশ গড়তে সকলের সহযোগিতা চান।

বিগত ১০ বছরে শীতে মানুষ মারা গেছে। শীতে মানুষ না খেয়ে আছে, এমনটি কথা আর শোনা যায়নি। মানুষ এখন কাজ কর্ম করছে। হত দরিদ্র শ্রমিকদেরও এখন হাজিরা বেড়েছে। যেমন, বিএনপির আমলে সারের পিছনে মানুষ ছুটছিল। আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শাষনামলে সার ছুটছে কৃষকের পিছনে। ঠিক তেমনি বিএনপি-জামায়াতের আমলে শীতে মানুষের কষ্ট দুর্দষা ছিল প্রকট। মানুষ শীতে মরেছে। শীতকে মানুষ ভয় পাচ্ছিলো। আর শেখ হাসিনা প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পর থেকেই পর্যাপ্ত শীতবস্ত্র থাকায় শীত এখন মানুষকে ভয় পায়।

২৫ জানুয়ারী শনিবার দিনাজপুর সদর উপজেলার ২নং সুন্দরবন ইউনিয়নের ব্যাংককালীস্থ আত্রাই উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে শিশুদের মাঝে শীতবস্ত্র ও গরীব-অসহায়দের মাঝে কম্বল বিতরন করেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রান মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান এমপি এসব কথা বলেন।

হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বলেন, কোন মানুষ শীতে কষ্ট পাবে না। শেখ হাসিনা এ দেশের মানুষের জন্যই বার বার প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন। মানুষ শান্তিতে থাকবে সেজন্য নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। দেশ উন্নয়নশীল হওয়ার পর থেকেই পাকিস্তানী প্রেতাত্মা বিএনপি-জামায়াত বিভিন্ন ধরনের ষড়যন্ত্র করছে। সকল ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করে দেশকে উন্নত দেশের কাতারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে।

দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মোঃ মাহমুদুল আলমের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন দুর্যোগ ও ত্রান মন্ত্রণালয়ে অতিরিক্ত সচিব আকরাম হোসেন, দিনাজপুর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মত্্্্্্্্্্য়িার রহমান,  সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ ইমদাদ সরকার, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ ফিরুজুল ইসলাম, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান কিশোর কুমার রায়,মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন আরা জোস্না, শহর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রায়হান কবীর সোহাগ, সাধারন সম্পাদক খালেকুজ্জামান রাজু, ইউপি চেয়ারম্যান মমিনুল ইসলাম , অসোক কুমার রায়, ২ নং সুন্দর বন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মানবেন্দ্র, সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email