মঙ্গলবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৩ ১৭ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

অস্ত্র চোরাচালানের বিষয়ে খালেদা ও তারেকের নাম এসেছে: প্রধানমন্ত্রী

Pmদশম জাতীয় সংসদের বৈঠকে সংসদ নেতার বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ১০ ট্রাক অস্ত্র মামলায় খালেদা জিয়া ও হাওয়া ভবনের নাম আলোচনায় এসেছে। তাই নতুন করে এটা তদন্ত করা হবে। অস্ত্র যে বাংলাদেশের ভেতর দিয়ে পাচার হচ্ছিল তার সাথে তৎকালীন হাওয়া ভবনের সম্পৃক্ততা ছিল কিনা তা খুঁজে বের করার জন্য আরেকটি তদন্ত কমিটি হতে পারে। বিডিআর বিদ্রোহে যে ৫৭ জন অফিসার মারা গেছেন তার মধ্যে ৩৮ জন অফিসার কোনো না কোনোভাবে আওয়ামী লীগ নেতাদের আত্মীয়। প্রশ্ন হলো বিএনপি নেত্রী বিডিআর বিদ্রোহের ঘটনার আগে কোথায় আত্মগোপনে গিয়েছিলেন। বহু ঘটনা এদেশে হয়েছে যেগুলোর আমরা বিচার পাইনি। ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছে, বিচার পাইনি। বঙ্গবন্ধুর খুনীদের জিয়াউর রহমান দুতাবাসে চাকরি দিয়ে পুরস্কৃত করেছে। এদেশে অন্যায়কে প্রশ্রয় দেয়া অনেকবার ঘটেছে।
সংসদ নেতা বলেন, বাংলাদেশ ভৌগোলিকভাবে একটি গুরুত্বপূর্ণ অবস্থানে রয়েছে। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা বাংলাদেশে একটি ভালো অবস্থান তেরি করে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০০৪ সালে আমার ওপর গ্রেনেড হামলা হয়। মারা যায় আইভি রহমান। আমার বেঁচে থাকাটা আল্লাহর রহমান ছাড়া আর কেউ নয়। সে হামলায় আমাদের অনেক নেতাকর্মী মারা যায়। অনেকে এখনো প্রিন্টার নিয়ে বেঁচে আছে।