বৃহস্পতিবার ৬ অক্টোবর ২০২২ ২১শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা

PM-bpআওয়ামী লীগ ৪৮ পৃষ্ঠার নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেছেন।আগামী পাঁচ বছরে দেশের প্রতিটি ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়ার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী।

আগামী ৫ বছরের মধ্যে দ্বিতীয় যমুনা ও দ্বিতীয় পদ্মা সেতু নির্মাণকাজ শুরু, ফোর-জি চালু, দুর্নীতি দমন কমিশনের ক্ষমতা-দক্ষতা বাড়িয়ে এর কার্যকারিতা বাড়ানো, নির্বাচন ব্যবস্থার সংস্কার অব্যাহত রাখা, ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে দলীয় প্রভাবমুক্ত রাখার প্রতিশ্রুতি এসেছে। শনিবার বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দলীয় ইশতেহার ঘোষণা  অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এ ঘোষণা দেন। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দারিদ্র্য ১৩ শতাংশে নিয়ে আসার ঘোষণা দিয়েছেন।
মহাজোট সরকারের ৫ বছরের সাফল্যও তুলে ধরা হয়েছে ইশতেহারে। বিরোধী দলের অসহযোগিতা ও
প্রধানমন্ত্রী বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের রায় কার্যকরের পর আগামীতে এ বিচার বানচালের ষড়যন্ত্রে জড়িতদেরও বিচারের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। তিনি বলেন, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বানচাল করতে গিয়ে আন্দোলনের নামে হত্যা, সন্ত্রাস, পবিত্র কোরআন শরিফে অগ্নিসংযোগ, শিল্প-কারখানায় অগ্নিসংযোগ, রেলওয়ের ফিশপ্লেট উপড়ে ফেলা, সড়ক কাটাসহ রাষ্ট্র ও জনগণের সম্পদের ধ্বংস, সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা, উপাসনালয় ধ্বংস, অগ্নিসংযোগ, লুটপাট ও বৃক্ষ নিধনের সঙ্গে জড়িত অপরাধীদের বিচার করার অঙ্গীকার করেছেন শেখ হাসিনা। এছাড়া সহিংসতায় ক্ষতিগ্রস্ত শিল্প-কারখানাসহ অর্থনীতির পুনর্বাসন, ক্ষতিগ্রস্তদের সহায়তা এবং নাশকতায় ধ্বংসপ্রাপ্ত স্থাপনা পুনর্র্নিমাণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ারও ঘোষণা দেন তিনি।
শেখ হাসিনা বলেন, দ্বিতীয় যমুনা সেতু ও দ্বিতীয় পদ্মা সেতু নির্মাণের কারিগরি ও অন্যান্য প্রস্তুতি দ্রুত সম্পন্ন করে আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে এ দুটি সেতুর নির্মাণকাজ শুরু করা ছাড়াও সোনাদিয়ায় গভীর সমুদ্রবন্দর নির্মাণের প্রকল্প গ্রহণ এবং বাস্তবায়ন করা হবে।
২০২১ সালে বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ২৪ হাজার মেগাওয়াটে উন্নীতের প্রতিশ্রুতি দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, পরিকল্পিত ৩০ লাখ সৌরবিদ্যুৎ প্যানেল স্থাপনের মাধ্যমে সৌরবিদ্যুতের ব্যবহার সহজলভ্য ও ব্যাপক করা হবে। এছাড়া রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্র ও রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্মাণ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শেষ করার প্রতিশ্রুতি দেন আওয়ামী লীগ সভাপতি। তিনি বলেন, এক হাজার তিনশ’ মেগাওয়াটের কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে নেয়া প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে এবং এজন্য প্রয়োজনীয় কয়লা আমদানি করা হবে। ২০৩০ সালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদনের হিস্যা হবে প্রায় ৫০ শতাংশ।
দ্বিতীয় মেয়াদে সজনগণের খাদ্য নিরাপত্তা, অতি দরিদ্র ও দুস্থদের জন্য বিনামূল্যে খাদ্য বিতরণ, কাজের বিনিময়ে খাদ্য ও টেস্ট রিলিফ ছাড়াও একটি বাড়ি একটি খামার, আশ্রয়ন, গৃহায়ন, আদর্শ গ্রাম, গুচ্ছ গ্রাম, ঘরে ফেরা প্রভৃতি কর্মসূচি অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন শেখ হাসিনা। এছাড়া বয়স্ক ভাতা, দুস্থ মহিলা ভাতা, বিধবা ও স্বামী পরিত্যক্তাদের ভাতা অব্যাহত থাকবে বলে আওয়ামী লীগের ইশতেহারে বলা হয়।
রাষ্ট্রপরিচালনার ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা বৃদ্ধির সর্বোচ্চ পদক্ষেপ নেয়া হবে। দুর্নীতি প্রতিরোধে আইন করা হবে। জীবন যাত্রার মান উন্নয়ন করা হবে। দ্রব্যমূল্য জনগণের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখা হবে। ২০১৩ সালের এই ইশতেহারে এবারের অগ্রাধিকার: সুশাসন, গণতন্ত্রায়ন ও ক্ষমতার বিকেন্দ্রিকরণসহ মোট ২৬টি বিষয়ের শিরোনামে প্রায় ৯০টি প্রতিশ্রুতি সম্বলিত এ ইশতেহার তৈরি করা হয়েছে।
এর মধ্যে আছে, জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন, দ্রব্যমূল্য ও সামষ্টিক অর্থনীতি, আমাদের গুরুত্বপূর্ণ আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন কর্মসূচি, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, দারিদ্র্যের বিরুদ্ধে যুদ্ধ, সামাজিক নিরাপত্তা : দারিদ্র্য হ্রাসে গ্রামীণ অর্থনীতিতে অর্জিত, কর্মসংস্থান, কৃষি, খাদ্য, ভূমি ও পল্লী উন্নয়ন, শিক্ষা ও মানব উন্নয়ন, বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযুক্তি, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ, নারীর ক্ষমতায়ন ও জেন্ডার সমতা, শিশু-কিশোর ও তরুণ প্রজন্ম, যোগাযোগ, মাদকাসক্তি প্রতিরোধ, জলবায়ু  পরিবর্তন: পরিবেশ ও পানিসম্পদ, শ্রমিক ও প্রবাসী কল্যাণ, নগরায়ন: পরিকল্পিত উন্নয়ন, গণমাধ্যম ও তথ্য অধিকার, জাতীয় সংস্কৃতি ও ধর্মীয় স্বাধীনতা, মুক্তিযুদ্ধেও গৌরব ও মুক্তিযোদ্ধার কল্যাণ, সংখ্যালঘু, ক্ষুদ্র জাতিসত্তা, অনুন্নত সম্প্রদায় ও পার্বত্য চট্টগ্রাম, প্রতিরক্ষা, খেলাধুলাস ও ক্রীড়া ব্যবস্থাপনা, এনজিও ও বিধিবদ্ধ সিভিল সোসাইটি সংগঠন, পররাষ্ট্রনীতিসহ মোট ২৬টি বিষয়ের শিরোনামে প্রায় ৯০ টি প্রতিশ্রুতি।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email