শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪ ৩০শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

আদিবাসী জনগোষ্ঠির স্বার্থ সংরক্ষণের দাবীতে এনডিএফ এর সংবাদ সম্মেলন।

শেখ সাবীর আলী, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: আদিবাসী জনগোষ্ঠির উপর অত্যাচার-নির্যাতন, ভুমি দখল, খুন, ধর্ষণ প্রভৃতির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ ও তাদের স্বার্থ সংরক্ষণের দাবীতে বেসরকারী সংস্থা নর্দান ডেপলোমেন্ট ফাউন্ডেশনের উদ্যেগে দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ী, বিরামপুর, নবাবগজ্ঞ ও ঘোড়াঘাট উপজেলার সাংবাদিকদের সঙ্গে সংবাদ সম্মেনের আয়োজন করা হয়।

গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় নর্দান ফউন্ডেশনের বিরামপুর কার্যালয়ে এই সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ দিশাম পরগনা ও বিরামপুর আদিবাসী ফেডারেশনের সভাপতি কেরবীন হেমরম এর সভাপতিত্বে নর্দান ফাউন্ডেশনের দিনাজপুর জেলা প্রোগ্রাম কর্মকর্তা রনজিৎ কুমার রায় লিখিত বক্তব্য প্রদান করেন। বিভিন্ন তথ্য উপস্থাপন করেন বিরামপুর প্রোগ্রাম কর্মকর্তা মনোরজ্ঞন সাহা, ইউনিট ইনচার্জ আব্দুস ছামাদ বক্তব্য প্রমুখ। সংবাদ সম্মেলনে বক্তাগন জানান বাংলাদেশে ৩০ লাখ আদিবাসী ৩৫টির অধিক জেলায় বসবাস করছে, কিন্তু জমিজমাকে কেন্দ্র করে মূলস্রোতধারার জনগোষ্ঠিরা দিনের পর দিন আদিবাসীদের উপর অত্যাচার নির্যাতন করে আসছে। আদিবাসী নারী নির্যাতনের শিকার হচ্ছে, বিভিন্ন স্বার্থে আদিবাসীদের খুন করা হচ্ছে, ভুমি দখল, ধর্ষণ সব রকম অত্যাচার-নির্যাতন চলছে আদিবাসীদের উপর। যে সকল নারী ধর্ষণ নির্যাতনের শিকার হয়েছে তাদের অধিকাংশের বয়স ১৮ বছরের নিচে বলে তথ্যে জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ী, বিরামপুর, নবাবগজ্ঞ ও ঘোড়াঘাট উপজেলার বর্ণনা দিয়ে তথ্যে বলা হয় ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারী নির্বাচনের পর আদিবাসীরাই বেশি জুলুম নির্যাতনের শিকার হয়েছে, এছাড়া অন্যান্য নির্যাতনের বর্ননা দেন বক্তাগণ। তার মধে চলতি সনের ১১ জানুয়ারী গোবিন্দগজ্ঞ উপজেলার সহকারী কমিশনার ভুমি অবিদিয় মার্ডিকে হত্যা, ২আগষ্ঠ জমিজমার বিরোধকে কেন্দ্র করে নবাবগজ্ঞ উপজেলার ঢুডু সরেনকরে হত্যা করা, ঘোড়াঘাট উপজেলার বাগজা আদিবাসী পাড়ায় অগ্নিসংযোগ করার কথা উল্ল্যেখ করেন। এই সকল অপরাধসহ আদিবাসীদের উপর নির্যাতনের সকল সুষ্ঠ বিচারের দাবী করেন আদিবাসী নেতৃবৃন্দরা।

Spread the love