বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ ১১ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

আমদানি-রপ্তানির সময় বৃদ্ধির জন্য ভারতীয় ব্যবসায়ীদের আবেদন

মোঃ আব্দুল আজিজ, হিলি প্রতিনিধি ॥ করোনাভাইরাসের প্রকোপ বৃদ্ধি হওয়ার কারনে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি সময় কিছুটা কমে বিকেল সাড়ে টা পর্যন্ত করা হয়েছিলো। আমদানি-রপ্তানির সময়সীমা বৃদ্ধির জন্য ভারতীয় ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের কাছে আবেদন করা হয়েছে। এই বন্দর দিয়ে আগের মতো সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত আমদানি-রফতানি চালুর দাবি করেন তারা।

শনিবার (২৮ আগস্ট) সন্ধ্যা সাড়ে ৬ টায় হিলি সীমান্তের চেকপোস্ট গেটের শূন্যরেখায় ভারতের হিলি এক্সপোটার্স অ্যান্ড কাস্টমস ক্লিয়ারিং এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক ধীরাজ অধিকারী এ বিষয়ে চিঠি দেন বাংলাদেশের হিলি কাস্টমস সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুল আজিজের কাছে।

সেখানে উপস্থিত ছিলেন, ভারতীয় ব্যবসায়ী গণেশ সাহা, হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রফতানিকারক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহিনুর রেজাসহ অনেকেই।

চিঠিতে বলা হয়, ভারত থেকে প্রায় এক হাজার ২শ’ পণ্যবোঝাই ট্রাক রপ্তানি পণ্য নিয়ে তাদের (ভারত) ৫১২ নম্বর জাতীয় সড়কে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে আছে। ফলে জাতীয় সড়কে অন্যান্য যানবাহন চলাচলে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। এর উপর এতদিন চাল রফতানি বন্ধ ছিল, বর্তমানে আবারও বন্দর দিয়ে চাল রফতানি শুরু হয়ে গেছে। এতে তারা সময়ের অভাব অনুভব করছে। সেই জন্য সন্ধা ৬টা পর্যন্ত সময় তারা বৃদ্ধি করার জন্য চিঠি দিয়েছেন।

হিলি কাস্টমস সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আব্দুল আজিজ জানান, দেশে করোনা ভাইরাসের কারনে সরকার বিভিন্ন সময় লকডাউন ঘোষনা করার কারনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে হিলি বন্দর দিয়ে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম চালু রাখা হয়েছিলো। সময় বৃদ্ধি করা জন্য এমতাবস্থায় গতকাল শনিবার (২৮ আগস্ট) সন্ধ্যায় তারা আমাদের চিঠি দিয়েছে। বিষয়টি নিয়ে অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য, বন্দর কর্তৃপক্ষ এবং প্রশাসনের সাথে আলোচনা করে সিন্ধান্ত গ্রহন করা হবে।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email