রবিবার ২১ এপ্রিল ২০২৪ ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানদের সঙ্গে বীরগঞ্জ এনসিটিএফ ও শিশু ফোরাম এর সভা

শিশু সাংবাদিক মো: মোর্শেদ হাসান আসিফ- বীরগঞ্জ, দিনাজপুর : গত ২৯শে জানুয়ারী ২০১৫ বিকাল ৩:৪০মিনিটে বীরগঞ্জন সিটিএফ ও বীরগঞ্জ শিশু ফোরাম,বীরগঞ্জ এর চারটি ইউনিয়নের (পাল্টাপুর, সুজালপুর, মোহনপুর ও নিজপাড়া ইউনিয়ন)ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানদের সঙ্গে বীরগঞ্জ এডিপির সভাকক্ষে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভার হয় যেখানে উক্ত চারটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জনাব দীনেশ চন্দ্র মহন্ত, জনাব মো:নুরুল ইসলাম, জনাব সুরেন্দ্রনাথ (কোকিল),জনাব মো: আ: খালেক সরকার এবং নসিটিএফ ও বীরগঞ্জ শিশু ফোরাম এর সভাপতি মো:মোর্শেদ হাসান আসিফ ও বীরগঞ্জন সিটিএফ এর সাংগঠনিক সম্পাদক মো: বেলাল হোসেন এবং শিশু সাংবাদিক শিউলী, নসিটিএফ ও বীরগঞ্জ শিশু ফোরাম এর সদস্য রেশমা, শাহানাজ , বীরগঞ্জ এডিপির ভারপ্রাপ্ত ম্যনেজার জুলিয়ান বিশ্বাস, শিশু কল্যাণ প্রজেক্ট এর ম্যনেজার বার্নাড কুজুর ও স্পনসরশিপ প্রজেক্ট এর ম্যনেজার সঞ্চয় টমাস পিউরিফিকেশন, শিশু কল্যাণ প্রজেক্ট এর প্রগ্রাম অফিসার জগদীশ কর্মকার গন উপস্থিত ছিলেন।উক্ত সভায় নসিটিএফ ও বীরগঞ্জ শিশু ফোরাম এর সভাপতি মো:মোর্শেদ হাসান আসিফ বীরগঞ্জ শিশু ফোরাম এর বিভিন্ন কার্যক্রম তাদের মাঝে তুলে ধরেন এবং শিশু ফোরাম এর দেয়ালিকা সহ শিশু সাংবাদিকদের স্থিরচিত্র গুলো দেখান,বীরগঞ্জন সিটিএফ এর পথচলা বর্ণনা দেন এবং পরবর্তীতে প্রতি ইউনিয় শিশু অধিকার রক্ষার ক্ষেত্রে ইউনিয়ন পরিষদের সঙ্গে কাজ করার প্রত্যয় ব্যাক্ত করে প্রতি ইউনিয়নে একটি করে কক্ষ বরাদ্দের জন্য মৌখিক ও লিখিত আবেদন করেন।সেইসঙ্গে শিশুদের জন্য প্রতি বছর আলাদা বাজেট বরাদ্দ দেওয়ার আহববান জানান।

উক্ত আলোচনা সভায় ইউনিয়ন চেয়ারম্যানগন পরিষদের কক্ষ ব্যবহার করেত দেওয়ার জন্য সম্মত হন এবং তাদের কার্যক্রম গুলো আরো বিস্তৃত করতে বলেন।

 

উল্লেখ্য যে,বীরগঞ্জ শিশু ফোরাম এর মাধ্যমে ইতিমধ্যে ৬০০ অধিক শিশু ” শিশু অধিকার’’ বিষয়ে প্রশিক্ষণ ও সচেতনতা প্রদান করা হয়েছে এবংবীরগঞ্জ শিশুদের জন্য বিভিন্ন কাজ করে যাচ্ছে। বীরগঞ্জ শিশু ফোরাম এর ১৫ জন সদস্য আবার শিশু সাংবাদিকতার সাথে যুক্ত আছে। বীরগঞ্জে শিশু অধিকার রক্ষায় কাজ করার জন্য এবং শিশুদের নেতৃত্ব বিকাশের জন্য গত ২০১১ সাল থেকে শিশু ফোরাম কাজ করেযাচ্ছে এবং গত অক্টোবর’১৪ থেকে বাংলাদেশের জাতীয় শিশু সংগঠন নসিটিএফএর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে ।

Spread the love