মঙ্গলবার ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২৪শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ঈদের পর আন্দোলনে নামলে ব্রাজিলের মতো ৭ গোল খাবেন : ঢাবিতে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

Nasimস্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ঈদের পরে সরকার পতনের আন্দোলনের হুমকি, ধামকি দিয়ে কোন লাভ নেই। আগামী ৫ বছরের আগে কোন নির্বাচন হবে না। তার আগে দল গোছান। তারপর আন্দোলনে নামেন। ২০১৯ সালে রাজপথে লড়াই হবে। আমরাও প্রস্তুত আছি। তার আগে আন্দোলনে নামলে ব্রাজিলের মতো ৭ গোল খাবেন। আজ বুধবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) অডিটরিয়ামে ‘গণতন্ত্র অবরুদ্ধ দিবস’ উপলক্ষে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কর্তৃক আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
আলোচনা সভায় ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সিদ্দিকী নাজমুল আলমের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাহমুদ হাসান রিপন, শেখ সোহেল রানা, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুযুল হায়দার চৌধুরী, সাজ্জাদ সাকিব বাদশা প্রমুখ।
স্বাস্থমন্ত্রী বলেন, বিএনপি আজ সব হারিয়ে পথে পথে ঘুরছে। শুধুমাত্র ইফতারিতে ছাড়া কোথাও জায়গা পাচ্ছে না। বিএনপি এমন দল গঠন করেছে যার নেতাকর্মীরা বিপদের সময় পাশে থাকে না। আন্দোলনে নামার সাহস পায় না। তারা আবার আন্দোলন করবে এটি কিভাবে হয় তা আমার বোধগম্য নয়। তিনি বলেন, গণতন্ত্র রক্ষার জন্য ৫ জানুয়ারির নির্বাচন খুবই জরুরি ছিল। অন্যথায় আজ সমগ্র দেশ জঙ্গিবাদের আস্তানা হতো। খালেদা জিয়া জামায়াতকে নিয়ে সেই ষড়যন্ত্রেই মেতে ওঠেছিলেন। কিন্তু শেখ হাসিনা তা প্রতিহত করে গণতন্ত্রকে পুণরুদ্ধার করেছেন। সংবিধানের কোথাও উল্লেখ নেই বিএনপি না আসলে নির্বাচন হবে না। নির্বাচন করবে দেশের জণগণ। দেশের জণগণই ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে জয়ী করেছে। আর শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে পরিচালিত হচ্ছে।
মোহাম্মদ নাসিম বলেন, নির্বাচন আমরা সংবিধান অনুযায়ী দিয়েছি। তাতে কেউ অংশ নিক বা নানিক তাতে আমাদের কিছু আসে যায় না। বিএনপি হাজারো চেষ্টা করে নির্বাচনকে বানচাল করে গণতন্ত্র প্রতিহত করতে চেয়েছিলো। কিন্তু তাতে তিনি ব্যর্থ হয়েছেন। তাই ঈদের পর আন্দোলনের নামে আবার দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টির চেষ্টা করছে। কিন্তু দেশের জণগণ অতিতেও তার ডাকে সাড়া দেয় নি ভবিষ্যতেও দিবে না। ছাত্রলীগকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, সকল ক্ষেত্রে ছাত্রলীগকে জণগণের পাশে থাকতে হবে। জাতির কল্যাণে কাজ করতে হবে। ছাত্রলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে যেমনিভাবে ভালো কর্মী হতে হবে, তেমনি একজন ভালো ছাত্র,  একজন ভালো মানুষ হতে হবে।