শনিবার ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২১শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

একুশ মানেই মাথা নত না করা। একুশ মানেই আন্দোলন, প্রতিরোধ,সংগ্রাম ।

21-03১৯৫২ সালের ২১ ফেব্র“য়ারি সালাম, বরকত, রফিক, জব্বার, শফিকসহ নাম না জানা আরও অনেকে পশ্চিম পাকিস্তানি শাসকদের রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে নেমেছিলেন ঢাকার রাজপথে।ঘাতকদের উদ্যত রাইফেলের সামনে বুক পেতে দিয়ে ১৪৪ ধারা ভেঙেছিলেন। মাতৃভাষার জন্য প্রাণ উৎসর্গ করে তারা প্রমাণ করেছে একুশ মানেই মাথা নত না করা। একুশ মানেই আন্দোলন, সংগ্রাম, প্রতিরোধ।

জাতি আজ বিনম্র শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করছে ভাষাশহীদদের। দিনের আলো ফোটার আগে থেকেই শুরু হবে নগ্ন পায়ে প্রভাতফেরি করে শহীদ মিনার অভিমুখে যাত্রা। সারাদেশে শহীদ মিনারগুলো ভরে উঠেছে ফুলে ফুলে।
দিনটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বিরোধী দলীয় নেত্রী রওশন এরশাদ, বিএনপি চেয়ারপার্চন  খালেদা জিয়া পৃথক বাণী দিয়েছেন। রাষ্ট্রপতি বলেছেন, ভাষা দিবস পৃথিবীর সব ভাষাভাষী মানুষের সঙ্গে যোগসূত্র তৈরি করেছে। বিশ্ববাসীকে ঐক্য ও সম্প্রীতির বন্ধনে আবদ্ধ করেছে। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘অমর একুশে আমাদের গণতান্ত্রিক মূল্যবোঁধ, বাঙালি জাতীয়তাবাদ, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা এবং ধর্মনিরপেক্ষতার প্রতীক।

বিরোধী দলীয় নেত্রী রওশন এরশাদ বলেন, একুশের চেতনায় সব ভেদাভেদ ভূলে সকলকে নিয়ে আমরা এগিয়ে যেতে চাই।

’ খালেদা জিয়া বলেছেন, একুশের চেতনা সব ষড়যন্ত্রকারী আন্তর্জাতিক আধিপত্যবাদি শক্তিকে রুখতে উদ্বুদ্ধ করবে।
রাজধানী সহ সারাদেশে প্রভাতফেরি করে শহীদ মিনারে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন, আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও ভাষাশহীদদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া মাহফিলের মতো বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হচ্ছে।