শুক্রবার ৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২০শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

এবারের জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা শুরু হচ্ছে আজ

ডেক্স নিউজ : আজ বৃহস্পতিবার থেকে সারাদেশে একযোগে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। আজ সকাল ১০টায় জেএসসির ইংরেজি ১ম পত্র এবং জেডিসি’র আরবি ২য় পত্র পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রসঙ্গত গত ৪ নভেম্বর থেকে জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবার কথা ছিল। বিএনপি-জামায়াত জোটের হরতালের কারণে পরীক্ষা শুরু করা সম্ভব হয়নি। এবার এ পরীক্ষায় দেশের ১৯ লাখ দুই হাজার ৭৪৬ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করছে। আজ বুধবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
এদিকে গত ৪ নভেম্বর বৃহস্পতিবার এ পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ওই দিন থেকে জাতীয় সংসদের প্রধান বিরোধীদল বিএনািপর নেতৃত্বাধী ১৮ দলের ডাকা টানা ৬০ ঘণ্টার হরতালের ডাক দেয়। সে কারণে পূর্বনির্ধারিত তারিখ জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষা শুরু হতে পারেনি। ওই পরীক্ষা পেছানো হয়েছে। নতুন তারিখ অনুযায়ী ৪ ও ৬ নভেম্বর তারিখের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে আগামী ৮ ও ৯ নভেম্বর।
এর আগে এক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ছেলেমেয়েদের জীবনের নিরাপত্তার কথা বিবেচনা করে আমরা পরীক্ষার্থীদের হিংস্রতার মুখে ফেলে দিতে পারি না। তাই পরীক্ষা পেছানো হয়েছে। হরতাল আহ্বানকারী অবিবেকবান মানুষদের বিবেক জাগ্রত করারও আহ্বান জানান নাহিদ। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষাসচিব কামাল আবদুল নাসের চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের (মাউশি) মহাপরিচালক অধ্যাপক ফাহিমা খাতুন, আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাবকমিটির সভাপতি অধ্যাপক তাসলিমা বেগম প্রমুখ।
সংবাদ সম্মেলনে জাননো হয়, জেএসসি ও জেডিসিতে এবার মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৯ লাখ দুই হাজার ৭৪৬ জন। এর মধ্যে জেএসসিতে ১৫ লাখ ৮৭ হাজার ৩১৩ জনের মধ্যে ছাত্র সাত লাখ ৪৫ হাজার ৭৪৭জন, ছাত্রী আট লাখ ৪১ হাজার ৫৬৬জন। আর জেডিসিতে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা তিন লাখ ১৫ হাজার ৪৩৩জন। এর মধ্যে ছাত্র এক লাখ ৪৯ হাজার ৩৪৪ জন,  ছাত্রী এক লাখ ৬৬ হাজার ৮৯ জন।
শিক্ষামন্ত্রী জানান, গত বছরের তুলনায় এ বছর জেএসসিতে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৩৩ হাজার ৭৩৮ জন বেড়েছে। অপরদিকে জেডিসিতে ৩৯ হাজার ৩৫৭ জন কমেছে। এবছর দেশের জেএসসি ও জেডিসি মিলে মোট ২৭ হাজার ৭৪৮টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা দুই হাজার ৪২০টি কেন্দ্র পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে। এর আগে শনিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনা করে হরতাল প্রত্যাহারের আহ্বানা জানান। তবে নির্দলীয় সরকারের দাবিতে ডাকা বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলের এই হরতাল প্রত্যাহার করেনি বিরোধী জোট।