শনিবার ১ অক্টোবর ২০২২ ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ঐতিহাসিক কান্তজিউ মন্দির হচ্ছে অসাম্প্রদায়ীক চেতনার প্রতীক

কাশী কুমার দাস, স্টাফ রিপোর্টার ॥ জাতীয় সংসদ সদস্য মনোরঞ্জন শীল গোপাল এমপি বলেছেন, ঐতিহাসিক কান্তজিউ মন্দির হচ্ছে অসাম্প্রদায়ীক চেতনার প্রতীক। কাহারোল উপজেলা তথা দিনাজপুর জেলার পরিচয় বহন করে এই কান্তজিউ মন্দির। হিন্দু ভক্তদের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিলো অত্যাধুনিক দৃষ্টিনন্দন একটি রাসবেদী নির্মাণের। সেইস্বপ্ন আজ পূরণ হয়েছে। রাজ দেবোত্তর এষ্টেটের প্রচেষ্টায় এবং সরকারের সহযোগিতায় ৮০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে নির্মিত হয়েছে এই রাস বেদী। অবিলম্বে মন্দিরে ভক্তনিবাস ও মন্দির প্রাঙ্গণে টুরিস্ট হেড অফিস নির্মাণ করা হবে।
গত সোমবার বিকেলে রাজ দেবোত্তর এষ্টেটের সার্বিক তত্ত্বাবধানে অনুষ্ঠিত ৮০ লক্ষ টাকা ব্যয়ে ঐতিহাসিক কান্তজিউ মন্দির সংলগ্ন অত্যাধুনিক রাস বেদী ও কান্তজিউ মোড় হতে কাহারোল উপজেলা হেড কোয়ার্টার ভায়া কান্তজিউ মন্দির সড়কের উদ্বোধন করতে গিয়ে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথাগুলো বলেন। দিনাজপুরের জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকীর সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য রাখেন রাজ দেবোত্তর এষ্টেটের এজেন্ট রণজিৎ কুমার সিংহ। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন এলজিইডি দিনাজপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী এফ.এম খায়রুল ইসলাম, কাহারোল উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক সরকার, কাহারোল উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মনিরুল হাসান, দিনাজপুর সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার মর্তুজা আল মুঈদ, টুরিস্ট পুলিশের এসপি আসাদুজ্জামান আসাদ ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ কাহারোল উপজেলা শাখার সভাপতি একেএম ফারুক। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ও রাজ দেবোত্তর এষ্টেটের সদস্য স্বরূপ বকশী বাচ্চু, সদস্য শ্যামল কুমার ঘোষ, ডাঃ ডিসি রায়, এ্যাড সরোজ গোপাল রায়, গৌর চন্দ্র শীল, বিমল চন্দ্র দাস, জেলা আওয়ামী রীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডাঃ আব্দুল করিম। সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন জেলা নিরাপদ সড়কের সাধারন সম্পাদক হারুন-উর-রশিদ।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email