শনিবার ৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২১শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কাহারোলে ২ কেজি আলু দিয়ে একটি পান

কাহারোল (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ দিনাজপুরের কাহারোল উপজেলায় আলু নিয়ে চাষীরা মহাবিপদে।  উপজেলায় এবারে আলু বাম্পার ফলন। কিন্তু কৃষকের মাথায় হাত। উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায় আলু চাষের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১ হাজার ৭ শত ৯০ হেক্টর কিন্তু অর্জিত হয়েছে ১ হাজার ৯ শত ৮৫ হেক্টর। আলু এই বাম্পার ফলনের কারন হিসাবে জানা যায় কৃষকরা গতবছর আলু চাষ করে একটি ভাল মুনাফা অর্জন করেছিলেন তারই প্রেক্ষিতে এবারে উপজেলায় কৃষকগণ হাতের কাছে সার ও সুলভ মূলে বীজ ও তেল পাওয়ার ফলে পর্যাপ্ত পরিমানে কাডিনাল, গ্রেনলা ডায়মন, এসটারিস ও স্থানীয় বিভিন্ন জাতের আলু চাষ করেন। কৃষক শ্রী রঞ্জিত কুমারের সাথে কথা বললে তিনি জানান একরে ২ শত ৫০ মন পর্যন্ত আলু উৎপাদিত হয়েছে। একর প্রতি খরচ হয়েছে ৪০ হইতে ৪৫ হাজার টাকা। আলুর বাজার মন্দা হওয়ার কারণ জানতে চাওয়া হলে কৃষি অফিস জানায় কিছু দিন আগে দেশের পরিস্থিতি উপত্তপ্ত ও অবরোধ হরতাল থাকার কারণে এই এলাকার আলু শহরমুখী হতে পারে নাই। যার ফলে একসাথে আলু কৃষকগণের কাছে বিভিন্ন ভাবে মজুদ রয়ে গেছে। কিন্তু হরতাল আবরোধ যে সময় শীথিল হয়েছে ঠিক সময় বগুড়া জেলার দিকে পর্যাপ্ত আলু চাষ করা হয়েছে। যার ফলে বগুড়া থেকে যে আলু গুলি রাজধানীর দিকে  পাঠানো হচ্ছে তাহাতেই বাজার বগুড়ার আলু দিয়েই সয়লাব। সেই কারণে কাহারোল এলাকার আলু চাষীরা জেলার বাইরে পাঠাতে না পেরে আলু নিয়ে পড়ে গেছে মহা বিপদে। এলাকায় বিভিন্ন হাট-বাজারে এখন একখিলি পানের দাম দিয়ে পাওয়া যাচ্ছে ২ কেজি গ্রেনলা আলু।