মঙ্গলবার ৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৩ ২৪শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কিছু ভারতীয় চ্যানেলের প্রচার বন্ধের কথা ভাবছে সরকার: ইনু

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, বাংলাদেশে ভারতের কিছু টেলিভিশন চ্যানেলের সম্প্রচার বন্ধ করার বিষয়টি সরকারের সক্রিয় বিবেচনাধীন। আজ বুধবার সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে ফরিদুন্নাহার লাইলীর প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী এ কথা জানান।

জাহিদ মালেকের অপর প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী সংসদে জানান, জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালা চূড়ান্ত হলে সেই নীতিমালার আলোকে টক শোসহ অন্যান্য অনুষ্ঠান সম্প্রচার হবে।

শাহিদা তারেখের এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, কিছু কিছু মিডিয়ায় কিছু অসত্ সাংবাদিক মিথ্যাচার করছেন, প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করতে জঙ্গিবাদে উসকানি দিচ্ছেন, ধর্মীয় সম্প্রীতি নষ্ট করছেন। তবে এরা গণমাধ্যমের মূলধারার নয়।

হাসানুল হক ইনু বলেন, জাতীয় সম্প্রচার নীতিমালার আলোকে একটি কমিশন গঠন করা হবে। টক শো বা টেলিভিশনের কোনো অনুষ্ঠানের কারণে কারও সম্মানহানি ঘটলে তিনি কমিশনে অভিযোগ করতে পারবেন। প্রস্তাবিত নীতিমালায় এজন্য শাস্তির ব্যবস্থা রাখার সুপারিশ করা হয়েছে।

গ্যাস বিল বকেয়া ২ হাজার কোটি টাকা

চলতি বছরের ৩১ জুলাই পর্যন্ত সরকারি-বেসরকারি খাতে গ্যাস বিল বাবদ দুই হাজার ৭৫৮ কোটি নয় লাখ টাকা বকেয়া রয়েছে বলে বিদ্যুত্ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয় থেকে জানানো হয়েছে। বিদ্যুত্ প্রতিমন্ত্রী এনামুল হকের পক্ষে সংসদে প্রশ্নের জবাব দেন স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু।

জাতীয় পার্টির নূর-ই-হাসনা লিলি চৌধুরীর এ-সম্পর্কিত প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী জানান, গ্যাস বিল বাবদ বড় গ্রাহকদের কাছে মোট বকেয়ার পরিমাণ ৭৭৪ কোটি টাকা। এরমধ্যে পিডিবির কাছে ৬৪২ কোটি ৪৩ লাখ, বিসিআইসির কাছে ১৩০ কোটি ৭৮ লাখ এবং বিএসইসির কাছে এক কোটি ৩৬ লাখ টাকা বকেয়া আছে। বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মধ্যে শিল্প মন্ত্রণালয়ের কাছে ২২ কোটি, পাট মন্ত্রণালয়ের কাছে ৪১ কোটি ৮৬ লাখ, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কাছে চার কোটি ১২ লাখ, যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ের কাছে এক কোটি ৬২ লাখ টাকা উল্লেখযোগ্য। সব মিলিয়ে সরকারি প্রতিষ্ঠানের কাছে বকেয়ার পরিমাণ ৯১৫ কোটি টাকা।

এ ছাড়া বেসরকারি খাতে বকেয়ার পরিমাণ এক হাজার ৮৪২ কোটি টাকা। এর মধ্যে কাফকোর কাছে নয় কোটি ৪৪ হাজার, শিল্প খাতে ৬৪৩ কোটি ৪৫ লাখ, বাণিজ্যিক খাতে ৬৩ কোটি ২৭ লাখ, আবাসিক খাতে ২৪০ কোটি ২২ লাখ এবং সিএনজি খাতে ৪২৬ কোটি ১৫ লাখ টাকা উল্লেখযোগ্য।