মঙ্গলবার ৩১ জানুয়ারী ২০২৩ ১৭ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ক্ষমা চাইলেন সাদি গাদ্দাফি

Sayed Gaddafi ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক: লিবিয়ার সাবেক একনায়ক মুয়াম্মার গাদ্দাফির ছেলে সাদি গাদ্দাফি তার কৃতকমের্র জন্য জেল থেকে জাতির কাছে ক্ষমা চেয়েছেন। কারাগারে ধারণ করা ভিডিও ফুটেজে দেখা যায় তিনি বলছেন, ‘‘লিবিয়ার নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা নষ্ট করার জন্য আমি জনগণের কাছে ক্ষমা চাইছি। বিবিসি বলছে, চলতি মাসের শুরুর দিকে সাদিকে নাইজার থেকে লিবিয়ায় ফেরত পাঠানো হয়। ২০১১ সালে দেশটিতে গণআন্দোলন শুরু হলে তিনি পালিয়ে নাইজারে আশ্রয় নিয়েছিলেন। গাদ্দাফির শাসনের বিরুদ্ধে গড়ে ওঠা আন্দোলন নিয়ন্ত্রণে সাদি দমন-পীড়নের আশ্রয় নিয়ে ছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে। গাদ্দাফির ৭ ছেলের একজন ৪০ বছর বয়সী সাদি ইতালিতে স্বল্প সময়ের জন্য ফুটবল খেলেছেন। পে­বয় ধরনের জীবনযাপনের জন্য তিনি পরিচিত ছিলেন। রাজধানী ত্রিপোলির কারাকর্তৃপক্ষ সাদির ওই ভিডিওটি প্রকাশ করে। তাতে দেখা যায়, কারাবন্দিদের জন্য নির্ধারিত নীল পোশাক পরিহিত সাদি বলছেন, ‘‘আমি লিবিয়ার জনগণের কাছে ক্ষমা চাই, ক্ষমা চাই লিবিয়ান সরকারে থাকা প্রিয় ভাইদের কাছে আমার কৃতকমের্র জন্য। লিবিয়ার নিরাপত্তা ও স্থিতিশীলতা বিনষ্ট করার জন্য যা করেছি তার জন্য ক্ষমা চাই। তিনি বলেন, আমি স্বীকার করছি ওইসব কর্মকান্ড ভুল ছিল। আমাদের উচিত হয়নি এ ধরনের ঘটনায় জড়িত হওয়া। তিনি আরো জানান, কারাগারে তার সঙ্গে ভাল আচরণ করা হচ্ছে। তিনি দেশটিতে বিভিন্ন গোত্র যারা অস্ত্রহাতে তুলে নিয়েছে তাদের অস্ত্র সর্ম্পণেরও আহবান জানান। তবে ঠিক কি কারণে এই ভিডিও প্রকাশ করা হল তা পরিষ্কার নয়। ২০১১ সালের অগাস্টে রাজধানী ত্রিপোলির নিয়ন্ত্রণ দেশটির জাতীয় অমত্মবর্র্তীকালীন পরিষদ গ্রহণ করার পর সাদি সাহারা মরুভূমি দিয়ে পালিয়ে নাইজারে আশ্রয় নেন। এরআগে সাদি গাদ্দাফিকে ফিরিয়ে দিতে লিবিয়া সরকারের অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করেছিল নাইজার। লিবীয় আইনমন্ত্রী বলেছিলেন, সাদি মৃত্যুদন্ডে দন্ডিত হতে পারেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে নাইজার তাকে লিবীয় কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দিতে অস্বীকৃতী জানিয়েছিল। ২০১২ সালে ইন্টারপোল তার সদস্য রাষ্ট্রগুলোতে সাদিকে গ্রেপ্তারে ‘রেড নোটিশ’ জারি করে। লিবিয়ার নতুন সরকার ক্ষমতায় কিছুটা স্থিতিশীল হওয়ার পরপরই গাদ্দাফি পরিবারের বেশ কয়েকজন সদস্য  ও সাবেক কর্মকর্তাকে তাদের হাতে তুলে দেয়ার জন্য বিভিন্ন দেশের প্রতি আহবান জানিয়ে যাচ্ছে। এ ক্ষেত্রে সাফল্য মিশ্র। অর্থাৎ বিফলও নয় আবার পুরোপুলি সফলও নয়।