রবিবার ২৬ জুন ২০২২ ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গাজায় নিহতের সংখ্যা ১০০০ ছাড়িয়ে গেছে

intগাজার বিভিন্ন স্থানে ইসরাইলি হামলার ধ্বংসাবশেষ থেকে আ শনিবার অন্তত আরো ৩৫ ফিলিস্তিনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। ফলে গত ৮ জুলাই থেকে গাজা উপজেলায় ইসরাইলি অভিযানে মোট নিহতের সংখ্যা ১০০০ ছাড়িয়ে গেছে। হাসপাতাল কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে শনিবার রাতে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম এ খবর জানায়। জরুরি সেবা বিভাগের মুখপাত্র আশরাফ আল কুদরা বলেন, মানবিক অস্ত্রবিরতি বলবৎ হওয়ার ৩ ঘন্টার মধ্যে এসব লাশ উদ্ধার করা হয়। তিনি জানান, পূর্ব গাজা সিটির শোজাইয়া থেকে ১৩টি, দেইর আল বালাহ ও নুসেইরাত থেকে ১৩টি এবং উত্তর গাজা থেকে ৯টি লাশ উদ্ধার করা হয়েছে।
এদিকে এতগুলো প্রাণহানীর পর এবার গাজায় মাত্র ১২ ঘণ্টার অস্ত্রবিরতি ঘোষণা করা হয়েছে। ইসরাইলি সামরিক বাহিনী ও হামাস শনিবার জানিয়েছে, তারা স্থানীয় সময় সকাল ৮টা (০৫০০জিএমটি) থেকে পরবর্তী ১২ ঘণ্টা অস্ত্র বিরতি পালন করবে। কিন্তু সেখানে দীর্ঘমেয়াদী অস্ত্রবিরতি অধরাই থেকে গেল। হামাস বলেছে, তারা ও গাজার অন্যান্য যোদ্ধা গ্রুপ মানবিক অস্ত্রবিরতি প্রশ্নে জাতীয় ঐকমত্যে পৌঁছেছে। এদিকে ইসরাইলি সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকেও এ অস্ত্রবিরতি নিশ্চিত করে বলা হয়, গাজা উপত্যকায় মানবিক কারণে তারা অস্ত্রবিরতি পালন করবে।
গাজায় হামাস পরিচালিত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বোমা হামলায় বিধ্বস্ত বিভিন্ন ভবন এবং হামলা ঝুঁকিতে থাকা যোদ্ধাদের ঘাঁটির দিকে না যাওয়ার ব্যাপারে জনসাধারণকে সতর্ক করে দেয়া হয়েছে। গাজার জরুরি সেবা সংস্থা জানায়, গাজা সংঘাতে ১৯তম দিন শনিবার ইসরাইলি বিমান ও গোলাবর্ষণে ১৫ জন নিহত হয়েছে। তাদের মধ্যে ৪ শিশু ও একজন চিকিৎসা কর্মী রয়েছে।
এর আগে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি কায়রোতে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, গাজা সংঘাত বন্ধে একটি দীর্ঘমেয়াদী অস্ত্রবিরতির ক্ষেত্রে এখন পর্যন্ত সফলতা না আসলেও এ ব্যাপারে তিনি আশাবাদী। শনিবার প্যারিসে পৌঁছান তিনি। সেখানে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, জার্মানি, ইতালি, কাতার, তুরস্ক ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের নিয়ে দিন শেষে ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী লরাঁ ফেবিয়াসের বৈঠক আয়োজনের কথা রয়েছে।
কেরি জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি-মুনের সঙ্গে কায়রোতে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, অস্ত্রবিরতিতে সম্মত হতে ইসরাইল ও হামাসের মধ্যে কিছু শব্দগত পার্থক্য রয়েছে। তবে তারা অস্ত্র বিরতির বিষয়ে একটি মৌলিক কাঠামো দাঁড় করেছে। কেরি অস্ত্রবিরতির ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক প্রচেষ্টার নেতৃত্বে দিচ্ছেন। তবে শুক্রবার রাতে ইসরাইলের একটি টিভি চ্যানেলের খবরে বলা হয়, প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহুর নিরাপত্তা কেবিনেট কেরির আনা অস্ত্রবিরতির একটি প্রস্তাব সর্বসম্মতভাবে নাকচ করে দিয়েছে।
গাজার রকেট হামলা বন্ধে এবং হামাসের বিভিন্ন ঘাঁটি ও সুরঙ্গ পথ গুড়িয়ে দিতে গত ৮ জুলাই ইসরাইলের সামরিক অভিযান শুরুর পর থেকে এখন পর্যন্ত এ সংঘাতে সহস্রাধিক ফিলিস্তিনি নাগরিক নিহত হয়েছে। তাদের বেশির ভাগই বেসামরিক নাগরিক। অপরদিকে এ সময় ৩৫ ইসরাইলি সৈন্য ও ইসরাইলের দু’জন বেসামরিক নাগরিক এবং থাইল্যান্ডের একজন অভিবাসী কর্মী নিহত হয়েছে।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email