শনিবার ২৫ জুন ২০২২ ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গাজায় নিহতের সংখ্যা ৫৭৩ : আহত ৩ হাজার ৩০০ জন

Gইসরাইলি বর্বরতায় ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় টানা দু সপ্তাহে গণহত্যার শিকার হয়েছেন ৫৭৩ জন ফিলিস্তিনি। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন প্রায় ৩ হাজার ৩০০ জন ফিলিস্তিনি নাগরিক। যাদের মধ্যে এক বিরাট অংশ জুড়ে রয়েছে নারী, শিশু ও বয়স্ক মানুষ। এছাড়া ৪টি হাসপাতাল, ৩৪টি মসজিদ ও বহু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানও ধ্বংস হয়েছে।
এদিকে গাজায় যখন ইসরাইলি সেনারা বড় ধরনের বিপর্যয়ের মুখে পড়েছে তখন যুদ্ধবিরতির জন্য শুরু হয়েছে জোর প্রচেষ্টা। এরই অংশ হিসেবে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি পৌঁছেছেন মিশরে। তিনি শিগগিরি যুদ্ধবিরতি করতে হামাসের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। জাতিসংঘ মহাসচিব বান কি মুনও মধ্যপ্রাচ্য সফর করছেন। তিনি তার ভাষায় গাজার সহিংসতা বন্ধের কথা বলেছেন। যুদ্ধবিরতি প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে ফিলিস্তিনি ঐক্য সরকারের প্রধান মাহমুদ আব্বাস কাতার গেছেন হামাস নেতা খালেদ মাশআলের সঙ্গে আলোচনার জন্য।
ইসরাইলি আগ্রাসনের কারণে অভ্যন্তরীণভাবে উদ্বাস্তু হয়েছেন গাজার এক লাখ মানুষ। ইহুদিবাদী সামরিক বাহিনী প্রায় ৩ হাজার বার বিমান হামলা চালিয়েছে। গতকাল সোমবারও মধ্য গাজার একটি হাসপাতলের ওপর বোমা বর্ষণ করেছে ইসরাইল। এতে নিহত হয়েছেন ৫জন এবং আহত হন ৪০ জন। গাজার অধিবাসীদের বিরাট অংশ ইসরাইলি আগ্রাসনের মুখে পানির কষ্টে পড়েছে। ২৪ ঘণ্টায় মাত্র ৪ ঘণ্টা বিদ্যুতের সুবিধা পাচ্ছেন তারা।
অপরদিকে হামাসের হাতে ইসরাইলের সেনাবাহিনী অনেকটা পর্যুদস্ত হয়েছে। এরইমধ্যে ইসরাইলর হিসাব মতে ইহুদিবাদী সেনা নিহত হয়েছে ২৭ জন। তবে হামাসের হিসাবে এ সংখ্যা ৪২। এছাড়া কয়েকজন বেসামরিক মানুষও মারা গেছে। তবে ইসরাইলের রাষ্ট্রীয় গোপনীয়তার কারণে হতাহত ও ক্ষয়ক্ষতির প্রকৃত তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email