শনিবার ২৮ জানুয়ারী ২০২৩ ১৪ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গুলশানের কার্যালয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, তবে পতাকাবিহীন গাড়িতে

bnpগুলশানের কার্যালয়ে  বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, তবে পতাকাবিহীন গাড়ীতে। বিরোধীদলীয় নেতা হিসেবে গাড়িতে জাতীয় পতাকা ব্যবহার করলেও শনিবার রাতে তার গাড়িটি যখন গুলশানের বাড়ি থেকে বের হয়, তখন তাতে জাতীয় পতাকা দেখা যায়নি। খালেদা।  রাত পৌনে ৮টায় খালেদার গাড়ি বাসা থেকে বের হওয়ার সময় এর সঙ্গে বিরোধী দলীয় নেতার পুলিশ প্রটোকলও ছিল না, যা এতদিন দেখা যেত। তবে সামনে-পেছনে পাহারায় ছিল পুলিশের গাড়ি।

কার্যালয়ে চীনের রাষ্ট্রদূত লি জুনের সঙ্গে বৈঠকে বসেন বিএনপি চেয়ারপারসেন। বৈঠকে দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মাহবুবুর রহমান, তার উপদেষ্টা রিয়াজ রহমান ও সাবিহ উদ্দিন আহমেদও ছিলেন। বিএনপি কার্যালয়ে আগে থেকে ছিলেন ওসমান ফারুক, জয়নুল আবদিন ফারুক, নুরে আরা সাফা, শিরিন সুলতানা, নিলোফার চৌধুরী মনিসহ দলের নেতারা। নির্বাচন ঠেকানোর ঘোষণা দিয়ে গত ২৯ ডিসেম্বর গণতন্ত্র অভিযাত্রা কর্মসূচির পর খালেদার গুলশানের বাড়ি ও কার্যালয়ে পুলিশ পাহারা বাড়ানো হয়। খালেদার অভিযোগ, এর মধ্য দিয়ে কার্যত তাকে গৃহবন্দি করা হয়; যদিও সরকারের পক্ষ থেকে তা অস্বীকার করা হয়েছে।

২৯ ডিসেম্বর নয়া পল্টনের সমাবেশে যোগ দিতে বাঁধা পান বিএনপি চেয়ারপারসন। দলীয় নেতারাও তার সঙ্গে দেখা করতে যেতে বাঁধা পান। অবরুদ্ধ অবস্থায় অবশ্য যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত ড্যান মজীনা, যুক্তরাজ্যের হাইকমিশনার রবার্ট গিবসন, জার্মানির রাষ্ট্রদূত আলবার্ট কোনসে ও কানাডার হাইকমিশনার হিদার ক্রুডেন গুলশানের বাড়িতে গিয়ে খালেদার সঙ্গে দেখা করেন।
৫ জানুয়ারির নির্বাচনপ্রত্যাখ্যান করে নতুন করে নির্বাচনের দাবিতে আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন খালেদা জিয়া।  সেইসঙ্গে সমঝোতার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বানও রয়েছে তার।