রবিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ঘোড়াঘাটে ৭০ বছর পর ওয়ারিশ দাবী করে ১ একর জমির ইরি চারা নষ্ট

ঘোড়াঘাট (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে ৭০ বছর পর ওয়ারিশ দাবী করে ১ একর ২০ শতক জমির ইরি ধানের চারা গাছ নষ্ট করেছে ভূমি দস্যুরা। এ ব্যাপারে জমির মালিক বাদী হয়ে ভূমি দস্যুদের বিরুদ্ধে ঘোড়াঘাট থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।

ভূমি দস্যুদের বিরুদ্ধে মামলা করায় ভূমি দস্যুরা জমির মালিকদের প্রাণ নাশ সহ বিভিন্ন হুমকী অব্যাহত রেখেছে। ঘোড়াঘাট থানার মামলা সুত্রে জানা যায়, ঘোড়াঘাট উপজেলার খাইরুল গ্রামের ডাক্তার সিরাজুল ইসলাম সি,এস ও এস,এ রেকর্ডীয় সম্পত্তি জীবদ্দশায় তার ছেলে মেয়েদের নামে ওসিয়ত করে মৃত্যু বরণ করেন। ডাক্তার সিরাজুল ইসলামের ছেলে মেয়েরা তাদের নিজ নিজ অংশ ভাগ বাটোয়ারা করে চাষাবাদ করে ভোগ দখল করে আসছিল। এমতাবস্থায় ভুমি দস্যু ইরাদ আলীর পুত্র আঃ রহমান, ফজলু, দলিল ও ঋষিঘাট গ্রামের মৃত ইরাজ আলীর পুত্র মোজাম্মেল, সিরাজুল ইসলামের রেকর্ডীয় সম্পত্তির ওয়ারিশ দাবী করে ঋষিঘাট মৌজার ৩৩ শতক জমির সরিষা ক্ষেত নষ্ট করে ইরি ধানের চারা রোপণ করে। সিরাজুল ইসলামের ছেলে বাদী হয়ে ঘোড়াঘাট থানায় ভূমি দস্যুদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। ভূমি দস্যুরা ঋষিঘাট গ্রামের মৃত, কাজীমুদ্দিনের পুত্র ভূমি দস্যু মোকছেদ আলী ও তার পুত্র মতিয়ার রহমানের নেতৃত্বে ভাড়াটিয়া লাঠিয়াল সহ গত ২৬ ফেব্রুয়ারী ভোরে হঠাৎ পুনরায় ডাক্তার সিরাজুল ইসলামের ছেলেদের রোপনকৃত খাইরুল মৌজার এস,এ ৮৩ নং খতিয়ানের ১৩৭ দাগের ১ একর ২০ শতক জমির ইরি ধানের চারা গাছ নষ্ট করতে থাকে। এ সময় সিরাজুল ইসলামের ছেলে সাইদুর রহমান বাঁধা দিতে গেলে তাকে মারপিট করে। স্ত্রী বিউটি বেগম স্বামী সাইদুর রহমানকে রক্ষা করতে গেলে তাকেও মারপিট সহ বিবস্ত্র পূর্বক শ্লীলতাহানী ঘটিয়ে স্বর্ণালংকার ছিনতাই করে নিয়ে যায়। এ ব্যাপারে সিরাজুল ইসলামের ছেলে সাইদুর রহমান বাদী হয়ে ২০জনকে আসামী করে ঘোড়াঘাট থানায় একটি মামলা দায়ের করে। যার মামলা নং- ৩ তাং০৬-০৩-২০১৫ইং

Spread the love