মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ ৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ঘোড়াঘাট পৌর এলাকায় রাস্তার কাজে অনিয়মের অভিযোগ

দিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট পৌরসভার ৬/৭নং ওয়ার্ডের হিলি মোড় হইতে চককাঠাল গ্রামের রাস্তা ইটের সলিং করার কাজ অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

প্রায় ১ কিলোমিটার রাস্তাটির টেন্ডার অনুযায়ী কাজের মূল্য ৭ লাখ টাকা হলেও কাজ করা হচ্ছে অত্যন্ত নিুমানের ইট দিয়ে এবং ইট থেকে ইটের ঘনত্বে রাখা হয়েছে অনেক ফাঁকা। যা আগামীতে রাস্তাটির স্থায়ীত্বে প্রভাব ফেলবে বলে উল্লেখ করে এলাকার জনসাধারণ বলেন “হামরা জীবনেও ইনকা ইট বিছান রাস্তা কাকো করতে দেখেনি।

সরজমিনে গিয়ে দেখা যায় লেবারা বিছানো ইট গুলো বালু দিয়ে প্যাকিং এর কাজ খুব দ্রুত গতিতে করছে, এতে বিছানো ইটগুলো ঘনত্ব যে পরিমানে থাকার কথা তা না থেকে অনেক ফাঁক ফাঁক আছে পরোলতি হওয়ায় সাংবাদিক কাজের দৃশ্য ক্যামেরা বন্দি করলে উক্ত ঠিকাদার মিজানুর রহমানের কাজ পরিচালনাকারী লেবার সরদার লেবারদের বলতে থাকে আরো বেশি বেশি ফাঁক করে ইটগুলো বিছাতে।

তার এ আচারণ দেখে ঘটনাস্থলে উপস্থিত জনসাধারণ সহ সকলেই হতবাক হন। মন্তব্যে তারা বলেন কি পরিমান সরকারি কাজে অনিয়ম করার দুঃসাহস থাকলে ঠিকাদারের লোকজন এ রকমভাবে কথা বলতে পারে? পরবর্তিতে ঐ ৬/৭ নং ওয়ার্ডের কমিশনার মোঃ মেহেদুল ইসলাম ও কাজী কাদের মঈদ এর নিকট জানতে চাইলে তারা জানান আমরা দুইজন ওয়ার্ড কমিশনার যৌথভাবে পৌর মেয়র বরাবরে উক্ত রাস্তার কাজ প্রাপ্ত ঠিকাদার মিজানুর রহমানের অনিয়ম বহিরভূত কাজের বিরুদ্ধে অভিযোগ দিয়েছি।

রাস্তার কাজটি যেভাবে করার কথা ঠিকাদারের লোকজন সেভাবে করছেনা আমরা বার বার করে বলার পরেও আমাদের কথাকে তওয়াক্কা না করে আপন গতিতে তারা কাজ করেই যাচ্ছে। অভিযোগ প্রাপ্তির পর যদিও বিষয়টি তিয়ে দেখার জন্য ঘোড়াঘাট পৌরসভার মেয়র আস্বস্ত করেছেন, তবে কার্যকরি তেমন কোন ভূমিকা নিতে এখনো দেখা যায়নি। ঠিকাদার মিজানুর রহমানের লেবাররা এখনো তাদের মর্জি মোতাবেক একইভাবে কাজ করেই যাচ্ছে। এলাকার জনগন এ বিষয়ে উর্ধতন কর্তৃপরে আশু হস্তপে কামনা করেছেন।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email