শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪ ৩০শে চৈত্র, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

চিরিরবন্দরে ভারতে পাচারের প্রাক্কালে কিশোরী উদ্ধার, দু’পাচারকারী আটক

মো. রফিকুল ইসলাম, চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: দিনাজপুরের চিরিরবন্দর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে গত ১১ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার ভারতে পাচারের প্রাক্কালে মনিকা (১৪) নামে এক কিশোরীকে উদ্ধার এবং খোকন ঘাটোয়াল ও জয়দেব ঘাটোয়াল নামে দু’পাচারকারীকে আটক করেছে।

উলে­খ্য যে, গত ৬ ডিসেম্বর উপজেলার ১০নং পুনট্টি ইউনিয়নের আশ্রমপাড়ার সতিশ চন্দ্র রায়ের কিশোরী কন্যা গমিরাহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির ছাত্রী মনিকা রায় (১৪) কে ওই গ্রামের মাহাদেব ঘাটোয়ালের ছেলে দু’সন্তানের জনক খোকন ঘাটোয়াল (৩০) এবং তার আপন চাচা মৃত জগেন ঘাটোয়লের ছেলে জয়দেব ঘাটোয়াল (৪৫) ভারতে পাচারের উদ্দেশ্যে সুকৌশলে অপহরণ করে। তারা তাকে ভারতে পাচারের লক্ষে পার্শ্ববর্তী ফুলবাড়ি উপজেলার বাড়াইহাট নামকস্থানে খোকনের ফুফু কামিনী রায়ের বাড়িতে লুকিয়ে রাখে। মনিকার পিতামাতা ও স্বজনরা তাকে আত্বীয়সহ বিভিন্ন জায়গায় খোঁজখবর করতে থাকে। নিরুপায় হয়ে মনিকার পিতা থানা পুলিশের স্মরণাপন্ন হন। পুলিশও বিভিন্ন স্থানে অনুসন্ধান শুরু করে। এক গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চিরিরবন্দর থানার এসআই রাজু আহম্মেদ ও সঙ্গিয় পুলিশ ফুলবাড়ি থানা পুলিশের সহায়তায় গত ১১ ডিসেম্বর বিকেলে ফুলবাড়ি উপজেলার বাড়াইহাট নামকস্থানে খোকনের ফুফু কামিনী রায়ের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে মনিকাকে উদ্ধার করে। এ ঘটনা টের পেয়ে অপরহরণকারী খোকন ঘাটোয়াল ও জয়দেব ঘাটোয়াল পালাতে থাকলে পুলিশ ধাওয়া করে তাদের আটক করে চিরিরবন্দর থানায় নিয়ে আসে। এ ঘটনায় মনিকার পিতা বাদি হয়ে চিরিরবন্দর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি (মামলা নং ৪) মামলা দায়ের করেছেন। থানার অফিসার ইনচার্জ রওশন মোস্তফা পিপিএম বার ঘটনার সত্যতা স্কীকার করে বলেন দ্রুত পুলিশী হস্তক্ষেপের ফলে তাকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। ঘটনাটি এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।

Spread the love