রবিবার ২৬ জুন ২০২২ ১২ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

চিরিরবন্দরে মৃত্যুর ৮৭ দিনপর কবর থেকে স্কুল ছাত্রের মরদেহ উত্তোলন

মো. রফিকুল ইসলাম, চিরিরবন্দর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: আদালতের নির্দেশে চিরিরবন্দরে ৮৭ দিন পর কবর থেকে স্কুল ছাত্রের লাশ উত্তোলন করেছে থানা পুলিশ। গত ১৫ জুলাই মঙ্গলবার উপজেলার ফতেজংপুর ইউনিয়নের উত্তর পলাশবাড়ী গ্রামের মাস্টারপাড়ার কবরস্থান থেকে ইমরান হোসেন ওরফে কাজল (১০)’র লাশ উত্তোলন করা হয়। এ সময় জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আব্দুল হালিম টলস্টয় উপস্থিত ছিলেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, চলতি বছরের ১৮ এপ্রিল উপজেলার মাস্টারপাড়ার শহীদুল ইসলাম ওরফে কালামের ছেলে ইমরান হোসেন ওরফে কাজল (১০)’র লাশ ওই গ্রামের মহিরউদ্দিনের বাড়ির পাশের ডোবা থেকে উদ্ধার করে এলাকাবাসী। পরে ময়নাতদন্ত ছাড়াই কাজলের লাশ দাফন করা হয়। দাফনের পর কাজলের পিতা জানতে পারেন তার ছেলেকে ওই গ্রামের মহিরউদ্দিন, নাজমুল হুদা ও শাহজাহান মিলে হত্যা করে। হত্যার ঘটনাটি ধামাচাপা দেয়ার জন্য হত্যাকারীরা কাজলের লাশ ডোবার পানিতে ফেলে দিয়ে ডুবে মারা গেছে মর্মে প্রচার চালায়। নিহত কাজলের পিতা শহিদুল ইসলাম জানান, হত্যার ঘটনাটি জানতে পেরে তিনি ২২ এপ্রিল চিরিরবন্দর থানায় মামলা করতে গেলে থানা কর্তৃপক্ষ তা গ্রহণ করেনি। পরে তিনি গত ৪ জুন ওই ৩ জনকে আসামী করে প্রথম শ্রেণির জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালত-৩, দিনাজপুরে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। আদালতের বিচারক মো. তৌহিদুল ইসলাম চৌধুরী মামলাটি আমলে নিয়ে তদন্তের স্বার্থে কবর থেকে লাশ উত্তোলনের নির্দেশ দেন এবং ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই জাহিদ হোসেনকে ভিসেরা রির্পোটের ভিত্তিতে একটি তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের আদেশ দেন।

লাশ উত্তোলনের সময় ওই গ্রামের বাসিন্দা বাদশা, হুসেন, জাকির, খোরশেদ জানান- হত্যাকান্ডের ঘটনা ধামাচাপা দেয়ার জন্য আসামীদের প্ররোচনায় আমরা গ্রামবাসী কাজলের লাশ দাফন করেছিলাম। তারা জানান, কাজলের লাশ দাফনের পর কবর থেকে তার লাশটি চুরি করতে দুষ্কৃতিকারীরা রাতের আধারে আনাগোনা করেছিল। এতে আমাদের সন্দেহের সৃষ্টি হয়। এ চুরি ঠেকাতে বৃষ্টি-বাদল উপেক্ষা করে কবরের পাশে পলিথিন দিয়ে তৈরী ছাউনিতে রাত জেগে পাহারা দিয়েছে কাজলের পিতা শহীদুল ইসলাম। এলাকাবাসী এই মামলার সঠিক তদন্তপূর্বক দোষিদের শাস্তির দাবী জানান। এসআই মো. জাহিদ হোসেন জানান, মরদেহ কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে। ময়না তদন্ত শেষে রির্পোট পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email