বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১৫ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

চোরাগুপ্তা হামলায় মানুষ মৃত্যুর দায় বেগম জিয়াকেই নিতে হবে-খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এমপি

বিরল প্রতিনিধি : বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধূরী এমপি বলেছেন, বিএনপি’র ভূল নের্তৃত্ব ও ভূল সিদ্ধান্ত দেয়ার কারণে বেগম জিয়া আজ তোলা বিহীন ঝুরিতে পরিনত হয়েছে। জনগনের তার প্রতি এখন আর কোন রকম আস্থা এবং বিশ্বাস নাই। সে এখন অসুস্থ্য। স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি জামায়াত ও শিবিরকে স্যালাইন বানিয়ে খালেদা জিয়া লাইফ সাপোর্টে রয়েছে। সে এবং তার দলের কতিপয় নেতার হুকুমে ইস্যুবিহীন হরতাল-অবরোধ দিয়ে দেশে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে চোরাগুপ্তা হামলার মাধ্যমে মানুষকে যে ভাবে হত্যা করা হচ্ছে তার দায়ভার বেগম জিয়াকেই নিতে হবে।

 

 

শনিবার বিরল উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজের শুভ উদ্বোধন শেষে ফরক্কাবাদ ইউপি’র মালঝাড় ছেতেড়া বাজারে ইউপি আওয়ামীলীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

 

তিনি আরো বলেন, খালেদা জিয়া শুধু দেশের জন্য ভূল সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তা নয়, তাঁর সন্তানদের জন্যও তিনি ভূল সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বরাবরই। যার খেসারত হিসাবে মায়ের ভূল সিদ্ধান্তে হতাশাগ্রস্থ হয়ে মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে আরাফাত রহমান কোকো’র অকাল মৃত্যু হয়েছে, আর তারেক রহমান পলাতক রয়েছে। খালেদা দেশ পরিচালনায় ব্যর্থ, পরিবার পরিচালনায় ব্যার্থ। তাঁর ব্যার্থতার খেসারত বাংলার জনগণ কোন ভাবেই দেবে না, জনগণ হরতাল-অবরোধসহ ধ্বংসাত্মক সকল কর্মকান্ডের সমুচিত জবাব দেবে।

 

জনসভায় ফরাক্কাবাদ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি এসাহাক আলীর সভাপতিত্বে, উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড. রবিউল ইসলাম রবি (এপিপি)’র পরিচালনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি অধ্যাপক রিয়াজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক এ.কে.এম মোস্তাফিজুর রহমান বাবু, যুগ্ন-সম্পাদক রমা কান্ত রায়, আনোয়ারুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল আজাদ মনি, আলস্নামা আজাদ ইকবাল লাবু, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক মোশাররফ হোসেন মানিক, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মোশারফ হোসেন, অন্যতম সদস্য এম.এ.কুদ্দুস সরকার, কৃষকলীগের সভাপতি ও সাবেক এমপি মজিবর রহমান, সাবেক ছাত্রনেতা আফছার আলী প্রমূখ।

 

এর আগে প্রধান অতিথি উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে ৭৫ টি ক্লাবের মাঝে ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ করেন, ধামইর ইউপি’র পূণর্ভবা নদীর উপর জিগাতলা ব্রীজের ভিত্তি প্রস্থর, দুপ্তইর জিপি এস রাস্তা, ফরক্কাবাদ ইউপি’র দুপ্তইর জিপিএস হইতে রেজাইকুড়া ইউজেডআর সংযোগ সড়ক, ছেতরা হতে কবিরাজপাড়া পাকা সড়কের উদ্বোধন, মেধাকান্দর মা ও শিশু কল্যাণ কেন্দ্রের ভিত্তি প্রস্তরের উদ্বোদন এবং মাগুরাবান্দ পুলিশ ফাঁড়ির নির্ধারিত জায়গা পরিদর্শন করেন। কর্মসূচীগুলোতে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুলস্নাহ আল খায়রুম, থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল হাই সরকার, এলজিইডি দিনাজপুরের নির্বাহী প্রকৌশলীসহ প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ।

 

Spread the love