সোমবার ২২ এপ্রিল ২০২৪ ৯ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

চোরাচালানী ও হিজরাদের উৎপাতের কারনে কমে গেছে পার্বতীপুর ট্রেনের যাত্রী

আব্দুল্লাহ আল মামুন,পার্বতীপুর(দিনাজপুর)থেকে : চোরাচালানী ও হিজরাদের উৎপাতে এবং সময়মত ট্রেন চলাচল না করায় দেশের বৃহৎ রেলওয়ে জংশন পার্বতীপুর, জংশন হতে চলাচলকারী আন্ত:নগর ট্রেনসহ সব ট্রেনের যাত্রী কমেছে। ফলে ট্রেনের রাজস্ব আয় কমে গেছে।

প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, ২০১২-১৩ অর্থবছরের চেয়ে ২০১৩-১৪ অর্থবছরে যাত্রী কমেছে ১ লাখ ১৬ হাজার ৫৭১। রেলের রাজস্ব কমেছে ৪০ লাখ টাকার মত। পার্বতীপুর রেল জংশন সূত্রে জানা যায়, ২০১২-১৩ অর্থবছরে এ জংশন হতে যাত্রী চলাচল করেছে ৪ লাখ ৩৪ হাজার ৯৪৯ জন। এ থেকে আয় হয়েছে ৫ কোটি ৯৯ লাখ ৫৭ হাজার ৪৩৯ টাকা। পরবর্তী অর্থবছর ২০১৩-১৪ অর্থবছরে যাত্রী পরিবহন করেছে ৩ লাখ ১৮ হাজার ৩৭৮ জন। এ থেকে আয় হয়েছে ৫ কোটি ৫৯ লাখ ৫৮ হাজার ৫৭০ টাকা। হিসাবে দেখা যায়, পূর্ববর্তী অর্থবছরের চেয়ে গত অর্থবছরে যাত্রী কমেছে ১ লাখ ১৬ হাজার ৫৭১ জন। রাজস্ব কমেছে ৩৯ লাখ ৯৮ হাজার ৮৬৯ টাকা। যাত্রী পরিবহণে আয় কমলেও মালামাল পরিবহণে আয় বেড়েছে। ২০১২-১৩ অর্থবছরে মালামাল পরিবহণে আয় হয়, ১ কোটি ২৭ লাখ ২৭ হাজার ৪০৯ টাকা। পরবর্তী অর্থবছরে অর্থাৎ ২০১৩-১৪ অর্থবছরে এ খাতে আয় হয় ১ কোটি ৪৫ লাখ ৬৪ হাজার ৪০৫ টাকা। ২০১৩-১৪ অর্থবছরে এ খাতে ১৮ লাখ ৩৬ হাজার ৯৯৬ টাকা বেশী আয় হয়েছে।

অপরদিকে যাত্রীদের অভিযোগ একটি সংগোবদ্ধ হিজরার দল বিভিন ষ্টেশন থেকে ট্রেনে উঠে যাত্রীদের কাছ থেকে জোরপুর্বক টাকাপয়সা কেড়েঁ নেয়। তাদের চাহিদামত টাকাপয়সা না দিলে অশিস্নন কথাবার্তা ও নানাবিক শারিরিক নির্যাতন করে । কর্তব্যরত কর্মকর্তা ও কর্মচারী এবং জিআরপি পুলিশকে তাদের বিরম্নদ্ধে যাত্রীরা অভিযোগ করলেও কোন শুরাহ হয় না। খুলনা থেকে সৈয়দপুরগামী যাত্রীরা (যাত্রীদের টিকিট নং- ১৩৯৩২৪৯০,১৩৯৩২৩৯৭,১৩৭৩৬৭৬৭,১৩৯৩২৫৯৮,১৩৯২৬৭৯৩,১৩৯২৬৭৫২,রাজশাহী-পার্বতীপুর ১৩৮৬২৫৫১,১৩৮৬২৫৫২) এই প্রতিনিধিকে জানায় অভিযোগ গুলো। এ ব্যাপারে উর্দ্ধতন কর্মকতাদের প্রয়োজনিয় ব্যবস্থা নিতে যাত্রীরা অনুরোধ জানায়।

জানা যায়, এই রুটে চলাচলকারী আমত্মঃনগর ট্রেনসহ সব ট্রেনই বর্তমানে হিজরা আর চোরচালানী পণ্য পরিবহণের অভয়ারণে পরিণত হয়েছে। হিজরা ও চোরাচলানীদের উপদ্রবে যাত্রী সাধারণ হরহামেশাই হয়রানীর শিকার হচ্ছেন। তাছাড়া ট্রেন সঠিক সময়ে চলাচল করে না। ফলে যাত্রীরা ট্রেনের উপর আস্থা হারাচ্ছেন।

Spread the love