শনিবার ২ মার্চ ২০২৪ ১৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

জনগণই তাদের আদালতে বিচার করবে

বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা শওকত মাহমুদ বলেছেন,সাধারণ মানুষের ওপর এভাবে নির্যাতন অব্যাহত রেখে অবৈধভাবে কোনো সরকার ইতিহাসে টিকে থাকতে পারেনি। ‘আজকে মিডিয়ার সম্পাদকদের গ্রেফতার করা হচ্ছে মিডিয়ার কণ্ঠ রোধ করার জন্য, মিডিয়াকে ভয় দেখানোর জন্য। জনগণকে প্রকৃত সত্য দেখা থেকে বিরত রাখতে মিডিয়ার কণ্ঠ রোধ করা হচ্ছে। তারা যে সংবিধানের দোহাই দিয়ে অবৈধভাবে টিকে আছে, তা জনগণের বুঝতে বাকি নেই। এই জন্য জনগণই তাদের আদালতে বিচার করবে।’

 

সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে ‘গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার, বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড ও সহিংসতা বন্ধ, দ্রুত সংলাপ এবং নিরপেক্ষ নির্বাচনের দাবিতে’ পেশাজীবী সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

 

তিনি বিডিআর বিদ্রোহের প্রসঙ্গ টেনে বলেন, ‘২০০৯ সালে বিডিআর বিদ্রোহের সময় যারা প্রকৃত খুনি ছিল, তাদের সঙ্গে সংলাপ করে আরো খুনের সূত্রপাত করেছে সরকার। কিন্তু আজ দেশের জন্য, দেশের মানুষের জন্য কারো সঙ্গে সংলাপে বসতে চায় না। এমন ঘটনা শুধু আওয়ামী লীগই করল।’

 

শিল্পীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘যেখানে শিল্পীরা সাধারণ জনগণের পক্ষে কথা বলবে, তা না বলে ফ্যাসিবাদীকে উৎসাহ দিচ্ছে। আজকে খালেদা জিয়ার কার্যালয়ে নিহতদের তালিকা না করে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে এই তালিকা লাগিয়ে আসুন। তাহলে জনগণ আপনাদের ঘৃণা না করে ভালোবাসবে।’

 

সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক রুহুল আমিন গাজীর সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমেদ, ড্যাবের সভাপতি অধ্যাপক ড. আজিজুল হক, সহসভাপতি রফিকুল বাবু লাবু, সিনিয়র চিকিৎসক অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম প্রমুখ।

Spread the love