শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ ১৩ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জাইকার সহযোগিতায় ভিকারুন্নেসা নুন স্কুলে ২ দিনব্যাপি ভূমিকম্প বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত

jica earthquakeবীরগঞ্জ প্রতিদিন: জাপান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন এজেন্সী-জাইকার সহযোগিতায় পি ডব্লিউ ডি’র উদ্যোগে ২২ জানুয়ারি   রাজধানীর বেইলী রোডে ভিকারুন্নেসা নুন স্কুলে  শেষ হলো ভূমিকম্পের সাবধানতা, ভয়াবহতা ও সচেতনতা বিষয়ক দুইদিনব্যাপী আমত্মর্জাতিক সেমিনার। এতে অংশ নেন পাঁচ শতাধিক অভিভাবক ও শিক্ষক। সেমিনারে তুলে ধরা হয় বাংলাদেশে ভূমিকম্পের ঝুঁকি ও ভূমিকম্প পরবর্তী করনীয় নানা দিক সম্পর্কে। এছাড়া ভিডিও প্রোজেকশনের মাধ্যমে দেখানো হয় জাপানসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ভূমিকম্পের ভয়াবহতার দৃশ্য। সেমিনারে বক্তব্য রাখেন সিএনসিআরপি’র প্রকল্প ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মো.আব্দুল মালেক সিকদার, জাইকার কমিউনিকেশন স্পেশালিস্ট ইরিকো কোবায়াসি , ভিকারুন্নেসা নুন স্কুল আ্যন্ড কলেজের অধ্যক্ষ মন্জু আরা বেগম, শিক্ষাবিদ রোকেয়া সুলতানা, ভুমিকম্প বিশেষজ্ঞ মাহবুব রেজা ও সাংবাদিক তানজিম আনোয়ার। সিএনসিআরপি’র প্রকল্প ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মো.আব্দুল মালেক সিকদার বলেন, বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যতম প্রধান ভূমিকম্পের ঝুঁকিপূর্ণ দেশ হওয়া সত্ত্বেও এদেশের অধিকাংশ মানুষই জানেন না ভূমিকম্পের সাবধানতা, ভয়াবহতা এবং ভূমিকম্প পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবেলায় করনীয় সম্পর্কে। এ ধরনের সেমিনার ভূমিকম্প সম্পর্কে সচেতনতা অনেকাংশে বাড়িয়ে তুলবে। জাইকার কমিউনিকেশন স্পেশালিস্ট ইরিকো কোবায়াসি বলেন, বাংলাদেশের মানুষ জাপানিদের চেয়ে দূর্যোগ মোকাবেলায় অনেক এগিয়ে রয়েছে। এদেশের মানুষ সাইক্লোনের মত বড় ধরনের প্রাকৃতিক দূর্যোগ খুব সহজেই মোকাবেলা করছে। তিনি বলেন শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে এ বিষয়টি পাঠ্যপুস্তকে অন্তর্ভূক্তি জরুরি। ইরিকো কোবায়াসি বলেন , সিএনসিআরপি প্রকল্পের মাধ্যমে  ইতোমধ্যে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় ভূমিকম্প বিষয়ক মহড়া ও সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে।  ভবিষ্যতে  সারা দেশে ভূমিকম্প বিষয়ক এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।