বুধবার ১৭ অগাস্ট ২০২২ ২রা ভাদ্র, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

জাতীয় সরকার গঠনে বি. চৌধুরীর আহ্বান

বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেছেন, ‘ঘুমালে চলবে না, একচোখা নীতি ছাড়তে হবে। দেশের বর্তমান সংকটজনক পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে হলে একটি জাতীয় সরকার গঠন করতে হবে। তবে জাতীয় সরকারে বর্তমান সংসদের লোকজনকে অন্তর্ভুক্ত করা যাবে না। কারণ এই সংসদের লোকজন জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয় নাই।’

রবিবার দুপুরে বারিধারার বাসভবনে তার ৮৫তম জন্মদিন পালন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় এ আহ্বান জানান বি. চৌধুরী।

সাবেক রাষ্ট্রপতি বি. চৌধুরী দেশে আইএসের অস্থিত্ব আছে কিনা— সে বিষয়েও সরকারের সুস্পষ্ট ব্যাখ্যা দাবি করেন।

আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন বিকল্পধারার মহাসচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নান, অধ্যাপক আবু মোজাফফর আহমেদ, ইঞ্জিনিয়ার মো. ইউসুফ, শাহ আহম্মেদ বাদল, বেগ মাহাতাব, সাহিদুর রহমান, মাহবুব আলী, জানে আলম হাওলাদার, আইনুল হক, আসাদুজ্জামান বাচ্চু, মাহফুজুর রহমান, বিএম নিজাম, সাইফুল ইসলাম শোভন, শহীদুল হক ভূইয়া ও মামুনুর রশিদ।

আলোচনা সভা শেষে বি. চৌধুরী ৮৫তম জন্মদিনের কেক কাটেন। এ সময় বি. চৌধুরীর সহধর্মিণী হাসিনা ওয়ার্দা চৌধুরীও উপস্থিত ছিলেন।

তিনি বলেন, ‘বর্তমান জাতীয় সংসদের আগের সংসদের লোকজন এবং অন্যান্য দল ও শ্রেণী-পেশার মধ্য থেকে ভাল মানুষ নিয়ে এই জাতীয় সরকার গঠন করতে হবে।’

বি. চৌধুরী বলেন, ‘আমরা স্বাধীনতা পেয়েছি, জিয়াউর রহমানের আমলে কৃষি, শিক্ষা ও শিল্প বিপ্লবের ভিত্তি স্থাপিত হয়েছে। দেশে খাদ্য উৎপাদন বেড়েছে, দারিদ্র্য বিমোচনে দেশ অনেক দূর এগিয়েছে, শিক্ষাক্ষেত্রেও ভাল সাফল্য এসেছে।’

তিনি বলেন, ‘কিন্তু এ সব রাজনৈতিক ও বৈজ্ঞানিক অর্জন সত্ত্বেও আমরা গণতন্ত্র পেলাম না। ভোট আছে, ফলাফল নাই। মানুষ ভোট দিতে পারে না। ছাপ্পা মেরে মানুষের ভোট দিয়ে দেওয়া হয়। শতকরা পাঁচ ভাগ ভোট নিয়ে সরকার চলছে। দেশে শান্তি-শৃঙ্খলা নেই। নেই আইনের শাসন। সাগর-রুনির হত্যা, নারায়ণগঞ্জের ত্বকি হত্যা ও সাত খুনের বিচার এখনো হয় নাই। সাত খুনের মূল আসামি নূর হোসেনকে এখনো কলকাতা থেকে ফেরত আনতে পারে নাই এই সরকার।’

তিনি প্রশ্ন করে বলেন, ‘পুলিশের আগেই যদি প্রধানমন্ত্রী, তার ছেলে ও অন্য মন্ত্রীরা বলে দেন বিএনপি, জামায়াত এ সব হত্যার সাথে জড়িত, তাহলে পুলিশ কি করবে? পুলিশকে তাদের কাজ করতে দিতে হবে। বিচারের বিষয়ে বিচারককেই বলতে দিতে হবে।’

সাবেক এই রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘দেশে আইএসের অস্তিত্ব আছে কিনা— তা সরকারকে সুস্পষ্টভাবে বলতে হবে। ক্রিকেটে আমাদের বিশাল মর্যাদা ও অর্জনকে ম্লান এবং পাকিস্তানের পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য ষড়যন্ত্র চলছে। বাংলাদেশকে দুবাই গিয়ে খেলতে হলে কোথায় যাবে আমাদের ক্রিকেট? অনেক রকম ষড়যন্ত্র চলছে।’

Please follow and like us:
error
fb-share-icon
RSS
Follow by Email