বুধবার ৪ অগাস্ট ২০২১ ২০শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

জার্মানিতে ভয়াবহ বন্যায় ৪২ জনের মৃত্যু, বেশ ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা

জার্মানির পশ্চিমাঞ্চলে রেকর্ড বৃষ্টিপাত থেকে সৃষ্ট ভয়াবহ বন্যায় অন্তত ৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের বেশিরভাগই নর্থ রাইন-ওয়েস্টফেলিয়া ও রাইনল্যান্ড-পালাটিনেট প্রদেশের বাসিন্দা। এছাড়া নিখোঁজ রয়েছে আরো অনেকে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার পশ্চিম জার্মানিতে প্রবল বৃষ্টিপাতে বহু ঘর-বাড়ি তলিয়ে গেছে। নদীর পানি উপচে লোকালয়ে প্রবেশ করায় হতাহত হয়েছেন অনেকে। ঝড়ো বৃষ্টির কারণে অনেকে বিভিন্ন স্থানে আটকা পড়ে।

রাইনল্যান্ড-পালাটিনেট প্রদেশের প্রধান মালু ড্রায়ার, আকস্মিক বন্যাকে ‘বিপর্যয়’ অ্যাখা দিয়েছেন। এই প্রদেশটিতেই এখন পর্যন্ত ১৯ মারা গেছেন।

তিনি বলেন, প্রবল বৃষ্টিপাতের জেরে ছয়টি বাড়ি ভেঙে পড়ার পর অন্তত ৩০ জন নিখোঁজ রয়েছেন। এছাড়া শল্ড অঞ্চলের আরও ২৫টি বাড়ি যেকোনো সময় ভেঙে পড়ার ঝুঁকিতে রয়েছে।

কবলেনজ পুলিশের এক মুখপাত্র বলেন, বাড়ির ছাদ থেকে উদ্ধার করতে হবে, এমন লোকের সংখ্যা সম্পর্কে আমরা এখনো নিশ্চিত নই। তবে খবরে বলা হচ্ছে, বন্যার কারণে অন্তত অর্ধশত লোক ছাদের ওপর আটকা পড়েছেন।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, নিখোঁজদের সন্ধানে হেলিকপ্টার নিয়ে তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

এদিকে জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে বৈঠক করতে বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছেন। বৈঠকের আগে এই খবরে হতভাগ হয়েছেন তিনি।

দুর্যোগের কারণে জার্মানির পশ্চিমে বহু স্কুল বন্ধ ঘোষণা করেছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে দুই লক্ষাধিক বাড়িতে। বিঘ্ন ঘটছে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহেও।

জার্মান আবহাওয়া বিভাগের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার সারা দিন দেশটির দক্ষিণপশ্চিমাঞ্চলে ভারি বৃষ্টির আশঙ্কা রয়েছে। এ অঞ্চলে শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত টানা বৃষ্টি ঝরবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

Please follow and like us:
RSS
Follow by Email